শৈলকুপায় আওয়ামী লীগের দুপক্ষের সংঘর্ষে আহত ১০

0

মফিজুল ইসলাম, শৈলকুপা(ঝিনাইদহ)॥ ঝিনাইদহ জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলনে যাওয়ার সময় গাড়ি ভাংচুরের ঘটনাকে কেন্দ্র করে জেলার শৈলকুপায় আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। মঙ্গলবার সকাল ৮টার দিকে উপজেলার ১০নং বগুড়া ইউনিয়নের দলিলপুর-শিতালী গ্রামে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এ সময় ১০ ব্যক্তি আহত হয় বলে জানা যায়। আহতদের শৈলকুপা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে ৩ রাউন্ড সাউন্ড গ্রেনেড নিক্ষেপ করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নিয়ে আনে।এলাকাবাসীরা জানান, দীর্ঘদিন ধরে বগুড়া ইউনিয়নে সাবেক চেয়ারম্যান ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি নজরুল ইসলাম ও বর্তমান ইউপি চেয়ারম্যান জেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক শফিকুল ইসলাম শিমুল সমর্থকদের মধ্যে বিরোধ চলে আসছে। রোববার ঝিনাইদহ জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলনে যাওয়ার পথে শীতালী বাজারে শিমুল সমর্থক ইউপি সদস্য নায়েবের কর্মীরা নজরুল ইসলামের সমর্থক লাল্টু বিশ্বাসের গ্রুপের গাড়ি ভাংচুরের ঘটনা ঘটায়। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে শিতালী বাজারের পাশ থেকে সোমবার সন্ধ্যায় নায়েব সমর্থকদের ধাওয়া করে লাল্টু সমর্থকরা। এরই জের ধরে মঙ্গলবার সকাল ৭টার দিকে শিতালী বাজারে রশিদ খাঁ নামের এক ব্যক্তিকে কুপিয়ে আহত করে নায়েব সমর্থকরা। এ ঘটনার সাথে সাথে উভয়পক্ষ দলিলপুর ও শিতালী গ্রামের বাসিন্দারা দেশীয় অস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। সংঘর্ষে বকুল শেখ, রশিদ খাঁ, মিনিস্টার, আকুল, শিমুলসহ ১০ ব্যক্তি আহত হন। আহতদের শৈলকুপা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করা হয়েছে। এঘটনায় বগুড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক লাল্টু বিশ্বাস ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সদস্য নায়েব আলী একে অপরকে দায়ী করছে । শৈলকুপা থানার সেকেন্ড অফিসার পুলিশের উপপরিদর্শক আমিরুজ্জামান জানান, দলিলপুর শিতালী গ্রামে সংঘর্ষকারীদের ছত্রভঙ্গ করতে তিন রাউন্ড সাউন্ড গ্রেনেড নিক্ষেপ করে পুলিশ। সংঘর্ষকারীরা সবাই স্থানীয় আওয়ামী লীগের কর্মী-সমর্থক বলে জানায় পুলিশ ।

 

 

Lab Scan