শেখহাটি থেকে গুলি ও বোমা উদ্ধার দেখিয়ে ৪ জনের বিরুদ্ধে মামলা করলো র‌্যাব

0

স্টাফ রিপোর্টার ॥ যশোর শহরতলীর শেখহাটি কালীতলা থেকে অবিস্ফোরিত বোমা ও আগ্নেয়াস্ত্রের গুলি উদ্ধার দেখিয়ে মামলা করেছে র‌্যাব। এর আগে বুধবার দুপুর আড়াইটার দিকে ওই কালীতলায় দুই দল সন্ত্রাসীর সংঘর্ষে ৬ জন আহত হয়েছিল।
বুধবার রাতে ৪ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাতনামা আরও ৪/৫ জনকে আসামি করে কোতয়ালি থানায় অস্ত্র ও বিস্ফোরক আইনে মামলাটি করেন র‌্যাব-৬ সিপিসি-৩ যশোর ক্যাম্পের ডিএডি মো. শফিকুল ইসলাম।  আসামিরা হলেন ঝুমঝুমপুর চান্দের মোড়ের মৃত আনছার আলীর ছেলে মোমেল (৪২), সোহরাব হোসেনের ছেলে শিহাব (৩৩), শেখহাটি তমালতলার আবুল হোসেনের ছেলে বক্কার (৪৩) ও শেখহাটি বাবলাতলার স্বর্ণকার কামালের ছেলে সুমন (৩২)। মামলায় উল্লেখ করা হয়েছে, গত বুধবার বিকেল সোয়া ৩ টার দিকে র‌্যাব সদস্যরা খবর পান শেখহাটি কালীতলার আলমগীর হোসেনের ছেলে তৌহিদুর রহমান জুয়েলের আমবাগানে কতিপয় সন্ত্রাসী নাশকতামূলক কর্মকান্ডের জন্য হাতবোমা নিয়ে অবস্থান করছেন। এ খবর পেয়ে র‌্যাব সদস্যরা ঘটনাস্থলে যান। এ সময় র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে আসামিরা সেখানে আম বাগানের মালিক তৌহিদুর রহমান জুয়েলসহ কয়েকজনকে জখম করে কৌশলে পালিয়ে যান। পরে তৌহিদুর রহমান জুয়েলসহ কয়েকজন র‌্যাব সদস্যদের জানান যে, তারা আম বাগানের ভেতর একটি বেঞ্চের ওপর বসেছিলেন। তখন মোমেলসহ উল্লিখিত আসামিরা অস্ত্র-গুলি ও বোমা নিয়ে অতর্কিত তাদের ওপর হামলা চালান। তাদের কাছে ২টি ওয়ান শ্যুটারগান ছিলো। হামলাকারীরা মারধর করায় হযরত আলী (২২) নামে এক যুবক আহত হন। এ সময় তারা পর পর ২টি বোমা নিক্ষেপ করলেও তা বিস্ফোরিত হয়নি। এছাড়া হামলাকারীদের কাছে থাকা ২ রাউন্ড গুলি পড়ে গেছে। পরে তল্লাশি চালিয়ে হামলাকারীদের ফেলে যাওয়া ২ টি অবিস্ফোরিত বোমা ও ২ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করেন র‌্যাব সদস্যরা। স্থানীয় একটি সূত্র জানায়, আধিপত্য বিস্তার নিয়ে শেখহাটি কালীতলায় আওয়ামী লীগের স্থানীয় ২ গ্রুপের মধ্যে হামলা পাল্টা হামলার ঘটনা ঘটে। এতে ৬ জন আহত হন। এরা হলেন শেখহাটি জামরুলতলার লিটু, সৌরভ, সুমন, শান্ত, রাজু ও সুলতানপুরের দীপু।

 

 

 

 

 

 

 

Lab Scan