শুরু হয়েও হয়নি তাদের…

0

লোকসমাজ ডেস্ক॥ বলিউডে প্রতিদিনই নতুন ছবির ঘোষণা হচ্ছে, মুক্তিও পাচ্ছে কোনও না কোনও ছবি। কিন্তু এরমধ্যে হাতেগোনা কিছু ছবি আসে আলোচনায়। কোনোটি আবার আলোর মুখই দেখে না বছরের পর বছর। বলিউডে খ্যাতনামা এমন কিছু তারকা আছেন, যাদের ক্যারিয়ারের যাত্রা হয়েছিল এমনই কপালপোড়া সিনেমায়-
প্রীতি জিনতা
সবাই জানে ১৯৯৮ সালে শাহরুখের বিপরীতে ‘দিল সে’ দিয়ে এ নায়িকার শুরু। তবে এটার আগেই পরিচালক শেখর কাপুর তাকে একটি ছবির প্রস্তাব দিয়েছিলেন। ছবিটির নাম ছিল ‘তারা রাম পাম পাম।’ অনেক দূর কাজ এগিয়েছিল। কিন্তু হঠাৎ একদিন কোনও এক কারণে ছবিটির কাজ মাঝপথেই বন্ধ হয়ে যায়।
অনীল কাপুর
মুখ্য চরিত্রে অনীল কাপুরের প্রথম ছবি ছিল ‘কাহাঁ কাহাঁ সে গুজর গায়ে’। ১৯৮১ সালে ছবিটি নির্মাণের যাবতীয় কাজ শেষ হয়। কিন্তু বাণিজ্যিক কারণে মুক্তি দেওয়া যাচ্ছিল না ছবিটি। গুনে গুনে পাঁচ বছরের জন্য তাকের ওপর তুলে রাখা হয়েছিল রিল। এই ফাঁকে ‘রচনা’ ছবিতে দর্শকদের সামনে আত্মপ্রকাশ করেন অনীল কাপুর। মুক্তি পায় ‘ওহ সাত দিন’ শিরোনামের আরও একটি ছবি। পরে ১৯৮৬ সালে মুক্তি পেয়েছিল ‘কাহাঁ কাহাঁ সে গুজর গায়ে’ ছবিটি।
অভিষেক বচ্চন
রাকেশ ওমপ্রকাশ মেহরার ‘সমঝোতা এক্সপ্রেস’-এর মাধ্যমে অভিষেক বচ্চনের অভিষেক হওয়ার কথা ছিল। এ ছবির জন্য টানা আট মাস খেটেছিলেন অভিষেক। পরিচালক জানিয়েছেন, এ ছবির জন্য অভিষেক ডায়রিও লিখতেন। পরিচালকের মতে, রাজনৈতিক পরিস্থিতি অনুকূলে ছিল না বলে ছবিটি বানাতে পারেননি তিনি।
বিদ্যা বালান
আধুনিক এবং সমসাময়িক ভারতীয় সিনেমার অন্যতম সেরা অভিনেত্রী বিদ্যা বালানের প্রথম ছবি হওয়ার কথা দক্ষিণী তারকা মোহনলালের বিপরীতে ‘চক্রাম’। মালয় ভাষার ছবিটির কাজ শুরু হলেও শেষ হয়নি। পরে বাংলা ছবি ‘ভালো থেকো’ দিয়েই রুপালি পর্দায় আসেন বিদ্যা।
রোহিত শরফ
জন আব্রাহাম ও সাজিদ আলি মিলে বেশ স্বপ্ন দেখিয়েছিলেন রোহিত শরফকে। টানা দুই বছর ‘ব্যানানা’র শুটিংয়ে রোহিতকে ব্যস্তও রাখেন তারা। কিন্তু এত দূর গিয়েও বন্ধ করে দেন ছবির কাজ। পরে ‘ডিয়ার জিন্দেগি’ দিয়ে নিজেকে কিছুটা হলেও ফোকাসে নিয়ে আসেন রোহিত। এক সাক্ষাৎকারে বলেছিলেন, ওই সময় ছবির কাজ বন্ধ হয়ে যাওয়ায় অনেকেই তাকে বলিউড থেকে সরে যেতে বলেছিলেন। কিন্তু হাল ছাড়েননি রোহিত।
সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া

Lab Scan