শুক্রবার থেকে যশোরে শুরু হচ্ছে তিন দিনের আঞ্চলিক ইজতিমা

0

স্টাফ রিপোর্টার ॥ আগামী ১৫ ডিসেম্বর শুক্রবার থেকে যশোর মার্কাজ মসজিদ ময়দানে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে তিন দিনব্যাপী আঞ্চলিক ইজতিমা। তাবলীগ জামায়াতের দিল্লি নিজাম উদ্দীন মার্কাজ মসজিদের আমির হযরত মাওলানা সাদের অনুসারীরা এ ইজতিমার অয়োজন করেছেন। তিন দিনের এই ইজতিমায় আরব, ইন্দোনেশিয়াসহ দেশি- বিদেশি কয়েক হাজার ধর্মপ্রাণ মুসল্লি অংশ নেবেন। ১৭ ডিসেম্বর ইজতিমার শেষ দিন আখেরি মুনাজাত হবে।
ইজতিমা মাঠের প্রস্তুতির কাজ চলছে দ্রুত গতিতে। আল্লাহর নৈকট্য লাভের আশায় মুসল্লিরা স্বেচ্ছাশ্রমে অংশগ্রহণ করে প্রতিদিন ফজরের নামাজের পর থেকে শুরু করে গভীর রাত পর্যন্ত বিরামহীনভাবে কাজ করে চলেছেন।
যশোর আঞ্চলিক ইজতিমার আয়োজক কমিটির অন্যতম সদস্য রেজাউল ইসলাম রাজু ও ইয়ামিনুর রহমান জানান, যশোর জেলা তাবলীগ জামায়াতের উদ্যোগে আগামী ১৫, ১৬ ও ১৭ ডিসেম্বর তিন দিনের এ ইজতিমা প্রস্তুতির কাজ প্রায় ৯০ ভাগ শেষ হয়েছে। কয়েকশ’ তাবলীগের সাথী স্বেচ্ছাশ্রমে মার্কাজ মসজিদ সংলগ্ন ইজতিমা মাঠের প্যান্ডেল তৈরিসহ আনুষঙ্গিক কাজ করছেন। বৃহস্পতিবারের মধ্যে ইজতিমা মাঠের শতভাগ কাজ সম্পন্ন হবে।
তিনি বলেন, ইজতিমায় আগত মুসল্লিদের জন্যে নিরাপদ থাকা, সুপেয় পানি ও টয়লেটের ব্যবস্থা করা হচ্ছে। এজন্যে নির্দিষ্ট সংখ্যক স্বেচ্ছাসেবক সব সময় নিজেদের দায়িত্ব নিয়ে স্বেচ্ছাশ্রমে ব্রত থাকবেন। সাথে জেলা পুলিশ প্রশাসনের পক্ষ থেকে পর্যাপ্ত নিরাপত্তা দেয়া হবে বলে আয়োজকরা জানান।
এবারের ইজতিমায় ৩০ থেকে ৪০ হাজারের মতো মুসল্লির আগমন ঘটবে বলে ইয়ামিনুর রহমান জানান।
তিনি বলেন, যশোরের পুলিশ প্রশাসন নিরাপত্তার বিষয়টি তত্ত্বাবধান করবে। ইতোমধ্যে পুলিশসহ অন্যান্য সংস্থার লোকজন ইজতিমাস্থল পরিদর্শন করেছে।
আয়োজকরা আরও জানান, শুক্রবার ফজরের নামাজের পর আম বয়ানের মধ্যে দিয়ে তিন দিনের ইজতিমা শুরু হবে। এদিন ইজতিমা মাঠে কয়েক হাজার ধর্মপ্রাণ মানুষ জুমার নামাজ আদায় করবেন। নামাজ শেষে দেশ ও জাতির সমৃদ্ধি কামনায় বিশেষ দোয়া করা হবে।
তিন দিনের এই ইজতিমায় তাবলীগের ঢাকা কাকরাইলের শীর্ষস্থানীয় মুরুব্বী ছাড়া বিদেশি মেহমানরা বয়ান করবেন।
ইজতিমা মাঠের জিম্মাদার ইয়ামিনুর রহমান আরও জানান, এবারের ইজতিমায় মুসল্লিদের ৭টি খিত্তায় অবস্থান করতে হবে। এসব খিত্তায় যশোরের ৮ উপজেলার ধর্মপ্রাণ মুসল্লি ছাড়াও আশপাশ জেলার মুসল্লিরা অবস্থান করবেন। সর্বশেষ ১৭ ডিসেম্বর আখেরি মুনাজাতের পর ইজতিমা মাঠ থেকে একাধিক জামাত দাওয়াতি কাজের জন্যে দেশ-বিদেশের বিভিন্ন প্রান্তে বের হয়ে পড়বেন।

Lab Scan