শিক্ষক নিয়োগের দাবিতে ইবির ফার্মেসিতে তালা

0

 

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় সংবাদদাতা॥ শিক্ষক ও ল্যাব সহকারী নিয়োগ, আসবাপত্র সংকট নিরসনের দাবিতে মানববন্ধন, প্রেস ব্রিফিং ও বিভাগে তালা ঝুলিয়ে অবস্থান করছে কুষ্টিয়ার ইসলামি বিশ্ববিদ্যালয়ের ফার্মেসি বিভাগের শিক্ষার্থীরা। শনিবার (১৭ সেপ্টেম্বর) সকালে প্রশাসন ভবনের সামনে প্ল্যাকার্ড ব্যানার, ফেস্টুন নিয়ে তারা এই মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেন। পরে একই দাবিতে তারা বিভাগের সামনে অবস্থান নেন।
মানবন্ধনে প্ল্যাকার্ড-ফেস্টুনে লেখা ছিল ‘হোক প্রতিবাদ, জাগুক প্রশাসন,শিক্ষক নিয়োগ দ্রুত হোক’; ‘শিক্ষক নিয়োগে প্রহসন বন্ধ হোক’; ‘শিক্ষক নিয়োগে টালবাহানা চলবে না, চলবে না’।
মানববন্ধনে শিক্ষার্থীরা বলেন, ২০১৭ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে ফার্মেসি বিভাগ। অথচ গত পাঁচ বছরে আমাদের শিক্ষক মাত্র চার জন। যার মধ্যে দুই জন শিক্ষাছুটিতে আছেন দেশের বাইরে। কিছুদিনের মধ্যে শিক্ষার্থীদের নতুন আরেকটা ব্যাচ আসবে। শিক্ষক নিয়োগ না দিয়ে তারা মেডিক্যাল সেন্টারের কর্মকর্তা দিয়ে আমাদের ক্লাস করান। অন্য বিভাগ থেকে অতিথি শিক্ষক এসে আমাদের ক্লাস নেন, যারা কিনা ওই বিষয়ে কিছুই জানেন না। গত দুইবছর ধরে প্রশাসন আমাদের আশ্বাস দিয়ে আসছে। এখনো প্রশাসন বলছে নিয়োগ দেবে। কিন্তু শিক্ষক নিয়োগের জন্য ন্যূনতম কোনো উদ্যোগও নেয়নি।
তারা আরও বলেন, আমরা আজ রাস্তায় নেমে এসেছি শিক্ষক নিয়োগের দাবিতে। যতক্ষণ না পর্যন্ত শিক্ষক নিয়োগ হবে, আমরা কর্মসূচি চালিয়ে যাবো।
এ সময় আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের কাছে এসে ইবি উপাচার্য (ভিসি) অধ্যাপক ড. শেখ আব্দুস সালাম বলেন, ‘আপাতত আমার কিছু করার নেই। ২৮ তারিখে বিষয়টি নিয়ে সিদ্ধান্ত হবে। তার আগে কিছু বলতে পারবো না। তোমাদের দাবি যৌক্তিক, তোমরা শিক্ষার জন্য আন্দোলন করছো। আমরাও ইউজিসির কাছে পদ খালির কথা জানিয়েছি। আমার হাতে ক্ষমতা থাকলে কালকের মধ্যেই শিক্ষক নিয়ে আসতাম।’
পরে শিক্ষার্থীরা নিয়োগ না হওয়া পর্যন্ত আন্দালন চালানোর দাবি জানালে ভিসি বলেন, ‘আগের প্রশাসন শিক্ষক ছাড়া কেন ফার্মেসি বিভাগ খুলেছে? আমি পরবর্তী তারিখের আগে কিছু জানাতে পারবো না।’ এ সময় তার সঙ্গে ছিলেন উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. মাহবুবুর রহমান ও ছাত্র বিষয়ক উপদেষ্টা ড. সেলিনা নাসরীন।

Lab Scan