শার্শায় গৃহবধূকে হত্যার অভিযোগ

0

বাগআঁচড়া (যশোর) সংবাদদাতা ॥ যশোর শার্শার পল্লীতে ঝর্ণা খাতুন (৩০) নামের এক গৃহবধূকে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। জানা গেছে, গত ১০ বছর আগে সাতক্ষীরার কলারোয়া উপজেলার খোরদো গ্রামের রবিউল ইসলামের মেয়ে ঝর্ণা খাতুনের বিয়ে হয় শার্শা উপজেলার কায়বা ইউনিয়নের রাড়িপুকুর গ্রামের সিদ্দিক হোসেনের ছেলে ফারুক হোসেনের সাথে। তাদের দুটি ছেলে সন্তান রয়েছে। প্রথমদিকে সংসার জীবন ভালোভাবে কাটলেও কয়েক বছর পর থেকে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া বিবাদ হচ্ছিল। গত বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে স্বামী ফারুক স্ত্রী ঝর্ণাকে মারধর করেন। শুক্রবার সকালে ঘরের আড়ার সাথে ঝর্ণার ঝুলন্ত অবস্থায় লাশ পাওয়া যায়। গৃহবধূ ঝর্ণার ভাই তরিকুল ইসলামের অভিযোগ, তার বোনকে ফারুক পিটিয়ে হত্যার পর লাশ ঘরের আড়ার সাথে ঝুলিয়ে রাখেন। তিনি বলেন, এক লাখ টাকা যৌতুকের দাবিতে তার বোনের ওপর প্রায়ই নির্যাতন চালাতেন ফারুক। শার্শা থানা পুলিশের ওসি বদরুল আলম খান জানান, এ ব্যাপারে থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে। লাশটি উদ্ধারের পর ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালের মর্গে।

Lab Scan