লোহাগড়ায় দুই পক্ষের সংঘর্ষে আহত ২৫, ঢাল-সড়কি উদ্ধার

0

নড়াইল সংবাদদাতা ॥ নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলার চাপুলিয়া গ্রামে দু’পক্ষের সংঘর্ষে নারীসহ ২৫জন আহত হয়েছেন। ঘটনার পর পুলিশ ওই গ্রাম থেকে ঢাল-সড়কি উদ্ধার করেছে।স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, চাপুলিয়া গ্রামের বর্তমান মেম্বারের ছেলেকে চোর সন্দেহ করায় বর্তমান ও সাবেক মেম্বারের সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে।
বৃহস্পতিবার (১১ মে) সকালে কোটাকোল ইউনিয়নের চাপুলিয়া গ্রামে ঘন্টাব্যাপী এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। আহতদের লোহাগড়া ও কালিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এবং গোপালগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
স্থানীয়দের বরাত দিয়ে লোহাগড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. নাসির উদ্দিন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
পুলিশ জানায়, লোহাগড়া উপজেলার কোটাকোল ইউনিয়নের চাপুলিয়া গ্রামের পরিত্যক্ত একটি ঘর থেকে চোর সন্দেহে বর্তমান মেম্বার নজরুল ইসলামের ছেলে রবিউলকে ধরে তার পিতার কাছে সোপর্দ করে প্রতিপক্ষ সাবেক মেম্বার ইব্রাহীম মোল্যার লোকজন। চুরির ঘটনায় প্রতিপক্ষ প্রতিবেশী আব্দুর রহমানের ছেলে সুজন জড়িত বলে জানান রবিউল। পরে নজরুল মেম্বার সুজনকে বেদম মারপিট করেন। স্থানীয় চেয়ারম্যান শুক্রবার বিষয়টি মীমাংসার জন্যে দিন ধার্য করেন। কিন্তু বিচারের অপেক্ষা না করে  বৃহস্পতিবার সকালে উভয় পক্ষের লোকজন দেশি অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। এতে নারীসহ অন্তত ২৫ জন আহত হন।
কোটাকোল ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হাচান আল মামুদ বলেন, আজ শুক্রবার বিষয়টি মীমাংসার জন্যে দিন ধার্য ছিল। নজরুল মেম্বার বিষয়টি নিয়ে বুধবার রাতে মিটিং করলে বৃহস্পতিবার সকালে উভয়পক্ষ সংঘর্ষে লিপ্ত হয়।
লোহাগড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা নাসির উদ্দিন বলেন,পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। বর্তমানে এলাকার পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। ঘটনার পর বিভিন্ন বাড়িতে তল্লাশি চালিয়ে ৩টি ঢাল, ১১টি সড়কি ও ২টি বল্লম পুলিশ উদ্ধার করেছে বলে ওসি জানান।

 

Lab Scan