লোহাগড়ায় কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগে মামলা দায়ের

লোহাগড়া (নড়াইল) সংবাদদাতা ॥ নড়াইলের লোহাগড়ায় স্বামী পরিত্যক্তা কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগে মামলা দায়ের হয়েছে। গত রবিবার ওই কিশোরীকে ধর্ষণ করা হয়েছে বলে অভিযোগে বলা হয়েছে। এ ঘটনায় সোমবার কিশোরীর পিতা বাদী হয়ে পাঁচজনের নামে মামলা দায়ের করেছেন।
মামলার বিবরণে জানা গেছে, জয়পুর ইউনিয়নের চরআড়িয়ারা এলাকার স্বামী পরিত্যক্তা কিশোরী (১৪) পিতার বাড়ি থেকে গত বুধবার (৮ জানুয়ারি) ইতনা ইউনিয়নের লংকারচর গ্রামে খালাবাড়ি বেড়াতে যায়। গত রবিবার (১২ জানুয়ারি) বিকালে ওই কিশোরী খালাবাড়ি থেকে চাচার বাড়ি চরআড়িয়ারা এলাকায় ফিরে আসে। ওইদিন সন্ধ্যা সাড়ে ৬ টার দিকে চাচার বাড়ি থেকে নিজের বাড়ি যাবার পথে রাস্তা থেকে মুখ চেপে ধরে ছনের জমিতে নিয়ে চর আড়িয়ারা গ্রামের আলামিন মোল্লা (১৮) ওই কিশোরীকে ধর্ষণ করেন। এ সময় চরআড়িয়ারা গ্রামের শিহাব মোল্লা, মকুল মোল্লা, জাহাঙ্গীর মোল্লা, ইয়াসিন মোল্লা ধর্ষণের সময় আলামিনকে সহযোগিতা করেন। কিশোরীর চিৎকারে এলাকার লোকজন ছুটে এসে তাকে উদ্ধার করে পিতার বাড়ি নিয়ে যান। পরে বেশি অসুস্থ হয়ে পড়ায় পরিবারের লোকজন সোমবার (১৩ জানুয়ারি) সকালে লোহাগড়া হাসপাতালে এনে কিশোরীকে চিকিৎসা দেন। পরে লোহাগড়া হাসপাতালের জরুরি বিভাগের ডাক্তার উন্নত চিকিৎসার জন্য নড়াইল সদর হাসপাতালে প্রেরণ করেন। ওই কিশোরী বর্তমানে নড়াইল সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। লোহাগড়া হাসপাতালের জরুরি বিভাগের ডাক্তার দীবেন্দু দাস বলেন, ধর্ষণের অভিযোগ এনে ওই কিশোরী চিকিৎসা নিয়েছে। পরে ওই কিশোরীকে নড়াইল সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। লোহাগড়া থানার ওসি (তদন্ত) মো. আমানুল্লাহ আল-বারী বলেন, এ ঘটনায় কিশোরীর পিতা বাদী হয়ে সোমবার আলামিনসহ পাঁচজনের নামে মামলা দায়ের করেছেন। আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। কিশোরীর ডাক্তারী পরীক্ষা করানো হয়েছে।

ভাগ