রেলযাত্রী বেড়েছে ঝিকরগাছায়, ট্রেনে বগি বাড়ানোর দাবি

0

 

তরিকুল ইসলাম, ঝিকরগাছা (যশোর)॥ রেলের যাত্রী বেড়েছে যশোরের ঝিকরগাছায়। অতিরিক্ত যাত্রী সামলাতে প্রতিদিন হিমশিম খেতে হচ্ছে বলে জানান স্থানীয় রেল কর্মকর্তারা।
খুলনা-বেনাপোল কমিউটার ট্রেনটি প্রতিদিন দুইবার খুলনা থেকে বেনাপোল যাতাযাত করে। বেনাপোল থেকে খুলনায় ফিরতি ট্রেনটি বেনাপোল ও নাভারন স্টেশন থেকে যাত্রীতে ভরে যায়। এ কারণে ঝিকরগাছা স্টেশন থেকে যশোর, নওয়াপাড়া ও খুলনাগামী যাত্রীরা টিকিট কাটলেও অতিরিক্ত ভিড়ের কারণে পুরুষ যাত্রীরা ঠেলাঠেলি করে উঠতে সক্ষম হলেও নারীা ও শিশুরা উঠতে পাওে না। তাই এই রুটে চলাচলকৃত কমিউটার ট্রেনে ৬টি বগির সাথে আরও ৪টি বগি বাড়ানোর দাবি করেছেন যাত্রীরা। সম্প্রতি ঠেলাঠেলি করে উঠতে গিয়ে বেশ কয়েকজন যাত্রী দরজা থেকে পড়ে গিয়ে আহত হয়েছেন। এদের মধ্যে একজন নারীকে ঝিকরগাছা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।
সোমবার ঝিকরগাছা রেল স্টেশনের টিকিট কাউন্টারের সামনে যশোর ও খুলনাগামী যাত্রীদের লম্বা সারি দেখা যায়। তবে এসময় টিকিট বিক্রি বন্ধ ছিল। এছাড়া স্টেশনের প্লাটফর্মের উপর ৪ থেকে সাড়ে ৪ শতাধিক যাত্রী অবস্থান করছিলেন। এসময় বেশ কয়েকজন যাত্রীর সাথে কথা হয়। তাদের সকলের দাবি, এইরুটে বগি বাড়ানোর। টিকিট বিক্রি বন্ধের বিষয় জানতে চাইলে স্টেশন মাস্টার রাজিব কুমার বিশ্বাস বলেন, প্রতিদিন যাত্রীর চাপ বাড়ছে। টিকিট বিক্রির পর অতিরিক্ত ভিড়ের কারণে যাত্রীরা ট্রেনে উঠতে পারেন না। পরে এসে টিকিটের টাকা ফেরত চান। এনিয়ে প্রায় প্রতিদিন যাত্রীদের সাথে ঝামেলায় জড়াতে হচ্ছে। সেকারণে ঝামেলা এড়াতে অতিরিক্ত টিকিট বিক্রি বন্ধ রেখেছি।
এসময় যশোরগামী যাত্রী ঝিকরগাছা উপজেলা বিএনপির আহবায়ক মোর্তজা এলাহী টিপু বলেন, তিনি প্রায়ই এই রুটে যাতাযাত করেন। অতিরিক্ত ভিড়ের কারণে তিনিসহ অসংখ্য যাত্রী উঠতে পারেননি। বিশেষ করে নারী ও শিশুরা মোটেও উঠতে পারেনা। ফলে তিনিও বর্তমানে ৬টি বগির সাথে আরও অন্তত ৪টি বগি বাড়ানোর দাবি করেন।
বিকালে কুয়েট অধ্যায়নরত শিক্ষার্থীর অভিভাবক ঝিকরগাছা উপজেলার বাঁকড়া ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ সামছুর রহমান তার ছেলেকে ট্রেনে উঠিয়ে দিতে এসে বলেন, ফুলের রাজধানী খ্যাত ঝিকরগাছার গদখালীতে বাগেরহাট, খুলনাসহ বিভিন্ন এলাকা থেকে প্রতিদিন হাজার হাজার দর্শনার্থী ট্রেনসহ বিভিন্ন যাত্রী পরিবহনে আসে। ফলে বিকালে ফেরার সময় বাস না পেয়ে ট্রেনের দিকে ঝুকে পড়ে ওইসব যাত্রীরা। ফলে খুলনায় ফেরার সময় যাত্রীর ভিড় বেশি হয়। এদিকে সোমবার সকালে ঝিকরগাছা রেলওয়ে স্টেশনের এই ভিডিও ফেইসবুক লাইভে দিলে রেলওয়ের সাবেক মহাপরিচালক শামছুজ্জামান এক কমেন্টে লিখেছেন, বগি বাড়ানোর বিষয়য়ে বর্তমান কর্তৃপক্ষের কাছে দাবি জানানো হলো। এক সপ্তাহ পর হয়তো সম্ভব হতে পারে। বেনাপোলের স্টেশন মাস্টার জাকির হোসেন লিখেছেন, শামছুজ্জামান স্যারের নজর যখন পড়েছে তখন হয়ে যাবে।

 

Lab Scan