রিফাত হত্যা : সাত আসামি যশোর শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রে

বরগুনার আলোচিত রিফাত শরীফ হত্যা মামলার ছয় আসামিকে যশোর শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রে (বালক) পাঠানো হয়েছে। বুধবার বিকেল ৪টার দিকে তাদের এই কেন্দ্রে নিয়ে আসা হয়। এর আগে গত ১৫ জুলাই রাতুল শিকদার জয় (১৬) নামে এক আসামিকে এই কেন্দ্রে পাঠানো হয়েছিল। সবমিলিয়ে রিফাত হত্যা মামলায় অভিযুক্ত সাত কিশোর আসামি এখন যশোর কেন্দ্রে রয়েছে। যশোর শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রে বুধবার আসা ছয় আসামি হচ্ছে- রাশিদুল হাসান রিশান ওরফে রিশান ফরাজী (১৭), ওলিউল্লাহ ওরফে অলি (১৬), জয় চন্দ্র সরকার ওরফে চন্দন (১৭), তানভীর হোসেন (১৭), নাজমুল হাসান (১৪) ও আরিয়ান হোসেন শ্রাবণ (১৬)।
যশোর শিশু উন্নয়ন কেন্দ্র সূত্র জানায়, মঙ্গলবার (৩ সেপ্টেম্বর) বরগুনার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক মোহাম্মাদ সিরাজুল ইসলাম গাজীর আদেশে তাদের যশোর শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রে পাঠানো হয়। বয়স ১৮ বছরের কম হওয়ায় ওই ছয়জনকে যশোর শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রে পাঠানোর আদেশ দেন বিচারক। যশোর শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রের সোশ্যাল কাউন্সিলর মুশফিকুর রহমান সরকার বলেন, আজ (বুধবার) সকালে বরগুনা কারাগার থেকে সেখানকার প্রবেশন অফিসার মনিরুজ্জামান প্রিজনভ্যানে করে ছয় কিশোরকে যশোর কেন্দ্রে আনেন।
প্রসঙ্গত, গত ২৬ জুন বরগুনা সরকারি কলেজের সামনে সন্ত্রাসীদের হামলায় খুন হন রিফাত শরীফ। এ ঘটনায় রিফাতের বাবা দুলাল শরীফ বাদী হয়ে ১২ জনের নাম উল্লেখ ও পাঁচ-ছয় জনকে অজ্ঞাত আসামি করে বরগুনা সদর থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন। গত ১ সেপ্টেম্বর রিফাত শরীফ হত্যা মামলায় রিফাতের স্ত্রী আয়শা সিদ্দিকা মিন্নিসহ ২৪ জনের বিরুদ্ধে বরগুনার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে অভিযোগপত্র (চার্জশিট) দেয় পুলিশ। একই সঙ্গে রিফাত হত্যা মামলার ১ নম্বর আসামি নয়ন বন্ড ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত হওয়ায় তাকে মামলা থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়।

ভাগ