রামপালে আদালতের আদেশ অমান্য করে জমি দখল চেষ্টার অভিযোগ

0

রামপাল (বাগেরহাট) সংবাদদাতা ॥ রামপালের শ্রীরম্ভা গ্রামে ভোগদখলীয় জমিতে আদালতের আদেশ অমান্য করে জমি দখল চেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে। প্রতিপক্ষরা প্রভাবশালী হওয়ায় প্রতিকার মিলছে না বলে অভিযোগ করেছেন। জানা গেছে, উপজেলার গৌরম্ভা ইউনিয়নের শ্রীরম্ভা গ্রামের মাহাতাব উদ্দিন তার পৈতৃক ভিটা বাড়িতে দীর্ঘদিন ধরে বসবাস করে আসছেন। আর্জিতে তিনি উল্লেখ করেন, ৩ নং শ্রীরম্ভা মৌজার বিআরএস ৩২৯ খতিয়ানের ৩৪১ দাগের ০.৯৫ একরের মধ্যে ০.৬৬৫০ একর জমি নালিশি জমি। প্রতিপক্ষ তার আপন ভাগনে ওই জমি তার মায়ের দাবি করে গাছপালা কেটে বেআইনিভাবে বাড়িতে প্রবেশের চেষ্টা করে। এতে সংক্ষুব্ধ হয়ে মাহাতাব উদ্দিন বাগেরহাটের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে গত ১ মে ১৪৪ ধারায় একটি মিস মামলা দায়ের করেছেন। যার নম্বর – ৬৬১/২০২৩। বিবাদীরা হলেন একই গ্রামের মাহাবুব রহমান, মিজানুর রহমান ও মেহেদী হাসান। আদালত রামপাল থানাকে নোটিশ জারিসহ শান্তিশৃঙ্খলা বজায় রাখার আদেশ দেন। রামপাল থানার দারোগা সাইফুল ইসলাম ওই জমিতে ১৪৪ ধারার নোটিশ জারিসহ উভয় পক্ষকে নোটিশ করেছেন। সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায় বিবাদী পক্ষ ওই ভিটা বাড়ির কিছু অংশ নতুন করে ঘিরে সেখানে একটা রাইস মিলের মোটর লাগিয়ে রেখেছেন। এ বিষয়ে অভিযোগকারী মাহাতাব জানান, আমি আমার বোন জোহরাকে পৈতৃক জমি বুঝে দিয়েছি। সে যা পাবে তার থেকে তাকে বিলান জমি বেশি দিয়েছি। তারপরও তারা বিবাদ করছে। তারা আমার কন্যা মহসীনা তাইয়েবা মুরশিদকে মারধর করে গুরুতর আহত করেছে তারা। অভিযুক্ত মাহাবুর রহমান, মাহাতাব শেখ ও জোহরা বেগমের সাথে কথা হলে তারা জানান, আমাদের কোনও জমি দেয়নি। পিতার জমি একা মাহাতাব দখল করে খাচ্ছিল। আমরা এখন দখল করেছি। জমিতে আদালতের আদেশ রয়েছে এ অবস্থায় কি করে জমি দখল করলেন এমন প্রশ্নে তারা বলেন, আমরা কোনও আদেশ পাইনি। মাহাতাব মামলা করে তা তুলে এনেছে। এখানে আদালতের আদেশ অমান্য করা হয়নি। তবে রামপাল থানার এসআই শ্রীবাস কুন্ডু জানান, ওই জমিতে অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের আদেশ রয়েছে। যা জারি করা হয়েছে।

 

Lab Scan