রামপালের হাট-বাজারের বর্জ্য নদীতে, পরিবেশ বিপর্যয়ের আশঙ্কা

0

রামপাল (বাগেরহাট) সংবাদদাতা ॥ রামপালে বর্জ্য ফেলার নির্দিষ্ট জায়গা না থাকায় যত্রতত্র প্লাস্টিকের আবর্জনা ও মরা-পচা জীবজন্তুসহ সকল প্রকার বর্জ্য ফেলা হচ্ছে। হাট-বাজারগুলো নদী কেন্দ্রীক হওয়ায় অধিকাংশ ক্ষেত্রে বর্জ্য নদীতেই ফেলা হচ্ছে। ফলে নদীর নাব্যতা হ্রাসসহ পরিবেশ বিপর্যয়ের আশঙ্কা দেখা দিয়েছে।
খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, উপজেলার পেড়িখালী বাজারের সকল বর্জ্য মোংলা ঘোষিয়াখালীর চ্যানেলে ফেলানো হয়। এছাড়াও ফয়লাহাট, ডাকরা বাজার, কালিগ্জ বাজার, গিলাতলা বাজার, ঝনঝনিয়া বাজার, চাকশ্রী বাজার, বেতকাটা বাজার, গোনা বাজার ও গৌরম্ভা বাজারগুলো নদীকেন্দ্রীক। এ ছাড়াও ডাঙ্গায় রয়েছে ভাগা বাজার, শ্রীফলতলা বাজার, সন্নাসীর বাজার, বাবুর হাট। এসব বাজারের সম্পূর্র্ণ বর্জ্য নদীতে ও খালে ফেলানো হয়ে থাকে। বিশেষ করে ফয়লাহাট ও গিলাতলা বাজারের বর্জ্য সরাসরি নদীতে ফেলায় মারাত্মক সমস্যার সৃষ্টি হয়েছে। বাজারের ব্যবসায়ীদের সাথে কথা বলে জানা গেছে, ময়লা ডাম্পিং ব্যবস্থা না থাকায় ময়লা আবর্জনা নদী বা ডোবায় ফেলা হয়। তারা বলেন বাজার ব্যবস্থাপনা কমিটি থাকলেও এ ব্যাপারে কারো নজর নেই।
এ বিষয়ে বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা)’র বাগেরহাট জেলা সদস্য এম. এ সবুর রানা’র কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, বর্জ্য নদীতে ও খালে ফেলা হলে নদীর নাব্যতা হারাবে। এ ছাড়াও পরিবেশ দূষণ ও বিপর্যয় দেখা দেবে।

Lab Scan