রকেট হামলার জবাবে ইসরায়েলের বিমান হামলা

লোকসমাজ ডেস্ক ॥ অবরুদ্ধ গাজা থেকে শনিবার ফিলিস্তিনি যোদ্ধারা ইসরায়েলের দক্ষিণাঞ্চলে দুটি রকেট হামলা চালিয়েছিল। এর জবাবে ইসরায়েল যোদ্ধাদের লক্ষ্য করে একাধিক বিমান হামলা চালিয়েছে। মিশরের মধ্যস্থতায় বৃহস্পতিবার যুদ্ধবিরতিতে সম্মত হয়েছিল ইসরায়েল ও ফিলিস্তিনি সংগঠন ইসলামিক জিহাদ। দুদিনের মাথায় নতুন করে এই হামলা-পাল্টা হামলা সেই যুদ্ধবিরতি চুক্তিকে যে ভঙ্গুর করে ফেলছে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।
ইসরায়েলি সামরিক বাহিনীর বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, মধ্যরাতে ইসরায়েলের দক্ষিণের শহর বিরশেবায় রকেট হামলার সতর্কতা হিসেবে সাইরেনের সংকেত শোনা গেছে। তবে ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থার মাধ্যমে দুটি রকেট ধ্বংস করে ফেলা হয়েছে। এর কয়েক ঘন্টা পর হামাসের কয়েকটি চৌকি লক্ষ্য করে বিমান হামলা চালায় ইসরায়েলি বাহিনী। তবে এতে কোনো হতাহতের খবর পাওয়া যায় নি। ইসলামিক জিহাদের শীর্ষ কমান্ডার বাহা আবু আল-আত্তা মঙ্গলবার ভোররাতে ইসরায়েলি অভিযানে নিহত হন। এ ঘটনার জের ধরে ইরায়েলে বৃষ্টির মতো রকেট হামলা চালায় ফিলিস্তিনি যোদ্ধারা। ইসরায়েল এর জবাবে দুদিন বিমান হামলা চালায় গাজাতে। এতে অন্তত ৩৪ ফিলিস্তিনি নিহত হয়। হামলার সময় গাজার শাসক গোষ্ঠী হামাসকে এর আওতামুক্ত রাখা হয়েছিল। তবে শনিবার ইসরায়েল জানিয়েছে, এবার তারা হামাসকেও ছাড়বে না। এক বিবৃতিতে ইসরায়েলি সামরিক বাহিনী বলেছে, ‘ইসরায়েলের বেসামরিক নাগরিকদের বিরুদ্ধে যে কোনো পদক্ষেপে হামাসকে পরিণতি ভোগ করতে হবে’।

ভাগ