যেকোনো কিছুর জন্যই প্রস্তুত ইউক্রেনের সেনারা

0

লোকসমাজ ডেস্ক॥ যেকোনো কিছুর জন্যই প্রস্তুত রয়েছে ইউক্রেন। দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এ কথা বলেছেন। রাশিয়া যেকোনো সময় হামলা চালাতে পারে এমন আশঙ্কা থেকেই ইউক্রেনের সেনারা প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছে। শনিবার তাদেরকে কামানের গোলা ছুড়েও মহড়া করতে দেখা গেছে বলে সিএনএন-এর এক প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে। ইউক্রেনের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ডেনিস মোনাস্টিরস্কি বলেন, আমরা সেনাদের সঙ্গে কথা বলেছি। তারা প্রত্যেকেই অবিশ্বাস্য সাহসিকার সঙ্গে প্রস্তুতি নিচ্ছে। প্রত্যেকেই যেকোনো ধরনের অবস্থার জন্য প্রস্তত।এদিকে শনিবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) ইউক্রেনের কমপক্ষে দুই সেনার মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। ওই সেনা নিহত হওয়ার ঘটনায় রুশপন্থি বিচ্ছিন্নতাবাদীদের দিকে অভিযোগ তুলেছে ইউক্রেন। বিদ্রোহীদের হামলা আরও বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন। ইউক্রেন সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে বলা হয়, জনবহুল কেন্দ্রে কামানের গোলা ছুড়েছে বিদ্রোহী যোদ্ধারা। তারা তাদের আর্টিলারি সিস্টেম আবাসিক বাড়ি-ঘরের কাছে স্থাপন করেছে।সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে আরও বলা হয়, এভাবেই আমাদের শত্রুরা আমাদেরকে পাল্টা হামলার জন্য উসকে দিচ্ছে। বিদ্রোহীরা বেসামরিকদের ওপর কামানের গোলা ছুড়েছে বলে অভিযোগ করা হয়। এর পেছনে রাশিয়ার হাত রয়েছে বলেও দাবি করা হয়। তবে রুশ সরকার সব ধরনের অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করেছে। ইউক্রেনের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় শনিবার জানিয়েছে, রুশপন্থি বিদ্রোহীরা ৭০ বার যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘন করেছে। এর মধ্যে ৬০ বার ৮২ এবং ১২০ মিলিমিটার-ক্যালিবার কামানের গোলা ব্যবহার করা হয়। কিন্তু যুদ্ধবিরতি চুক্তির আওতায় এ ধরনের কামানের গোলা ব্যবহার নিষিদ্ধ। দেশটির প্রতিরক্ষামন্ত্রী ওলেকসি রেজনিকোভ বলেন, কোনো ধরনের সহিংসতার পরিকল্পনা ইউক্রেনের নেই। তবে ইউক্রেন, এর সেনাবাহিনী এবং বেসামরিক বসতিতে কারও হামলা তারা মেনে নেবে না। এর উপযুক্ত জবাব দেওয়া হবে। সে কারণেই সব ধরনের পরিস্থিতি মোকাবিলয়ায় প্রস্তুতি নিচ্ছে তাদের সেনারা।

Lab Scan