যুবককে হত্যার ১৩ বছর পর ৮ জনের যাবজ্জীবন

0

কুষ্টিয়া সংবাদদাতা॥ কুষ্টিয়ার মিরপুরে ১৩ বছর আগে অপহরণের পর ফিরোজ আহম্মেদ কাজল (২২) নামে এক যুবককে হত্যার দায়ে আটজনের যাবজ্জীবন কারাণ্ড দিয়েছেন আদালত। সেই সঙ্গে আসামিদের প্রত্যেককে ২৫ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরো এক বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় তিন আসামিকে খালাস দিয়েছেন বিচারক। বৃহস্পতিবার (২৪ মার্চ) দুপুরে কুষ্টিয়ার অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মো. তাজুল ইসলাম এ রায় দেন। যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্তরা হলেন, কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলার কালিকাপুর গ্রামের মাসুদ, সিদ্দিক, বরিয়া গ্রামের মাসুম মোল্লা, মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার হাড়াভাঙ্গা গ্রামের গিয়াস, মেসকাত আলী মোল্লা, কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার সালিমপুর গ্রামের সোহেল, ওয়াসিম রেজা এবং কুষ্টিয়া সদর উপজেলার চৌড়হাস উপজেলার জাকির হোসেন।
আদালত সূত্রে জানা গেছে, ২০০৯ সালের ১২ জুলাই মিরপুর উপজেলার বরিয়া গ্রামের ফিরোজ আহমেদ কাজলকে আসামিরা অপহরণ করে। পরে আাসামিরা তাকে হত্যা করে। এ ঘটনায় মিরপুর থানায় নিহত কাজলের বাবা দেলবার বাদী হয়ে মামলা করেন। মামলার তদন্ত শেষে ২০১৩ সালের ১ এপ্রিল আসামিদের বিরুদ্ধে আদালতে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করে পুলিশ। সাক্ষ্যপ্রমাণ বৃহস্পতিবার রায় ঘোষণা করেন বিচারক। আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) অনুপ কুমার নন্দী বলেন, হত্যা মামলায় দোষী প্রমাণিত হওয়ায় আট আসামিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন বিচারক।

Lab Scan