যারা ভোট চুরি করে ক্ষমতায় আছে তারা প্রধান চোর: আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী

0

লোকসমাজ ডেস্ক॥ তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচন এবং ব্যালট পেপারের মাধ্যমে ভোটগ্রহণের দাবি জানিয়েছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী। শুক্রবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) রাজধানীর সেগুনবাগিচায় স্বাধীনতা হলে এক আলোচনা সভায় তিনি এ দাবি জানান। আমির খসরু বলেন, আমাদের এবারের স্লোগান হাসিনার বদলে কেয়ারটেকার, ইভিএম’র বদলে ব্যালট পেপার। নির্বাচন কমিশনের বিষয়ে বিএনপির স্থায়ী কমিটির এই সদস্য বলেন, নির্বাচন কমিশন নিয়ে কোনো কথা বলতে চাই না। কমিশন কোনো ফ্যাক্টর না। এদের নিয়ে কথা বলে সময় নষ্ট করে লাভ হবে না। নির্বাচন কমিশন হচ্ছে আওয়ামী লীগের সহযোগী সংগঠন। তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশে যারা ভোট চুরি করে ক্ষমতায় বসে আছে, তারা হচ্ছে প্রধান চোর। সময় এসে গেছে, এই চোরদের ধরতে হবে। নির্বাচন কমিশন নিয়ে মাথা না ঘামিয়ে, সবচেয়ে বেশি দেশের জন্য যেটা প্রয়োজন আগামী নির্বাচনে নিরপেক্ষ সরকারের ওপর বাংলাদেশের সব জনগণকে জোর দেওয়া উচিত। রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠানকে উদ্দেশ করে আমির খসরু মাহমুদ বলেন, এরই মধ্যে বাইরের দেশ থেকে নিষেধাজ্ঞা এসেছে। নিষেধাজ্ঞা আসার অর্থ হচ্ছে চোর ও চোরের সহযোগীদের বিদেশিরা চিহ্নিত করেছে। ইভিএম পদ্ধতিতে ভোটগ্রহণের বিরোধিতা করে উপস্থিত নেতাকর্মীদের উদ্দেশে বিএনপির এই নেতা বলেন, আপনি চোর সরিয়ে ইভিএম রাখলেন, তাহলে হবে না। একসঙ্গে দুইটা করতে হবে। চোর ধরতে হবে, চোরের সরঞ্জাম ইভিএম বাজেয়াপ্ত করতে হবে। তিনি বলেন, একদিকে ভোট চুরি, অন্যদিকে উন্নয়নের নামে বড় চুরি করছে। চুরির মাধ্যমে সরকার বাংলাদেশের তহবিল খালি করে ফেলেছে। এই চুরির কারণে বিদ্যুৎ, গ্যাস, পানির বিলসহ নানা প্রক্রিয়ায় মানুষের পকেট কাটা হচ্ছে। বাংলাদেশ ইয়ুথ ফোরামের উদ্যোগে আলোচনা সভায় সংগঠনের উপদেষ্টা সাঈদ আহমেদ আসলামের সভাপতিত্বে ও সভাপতি মুহাম্মদ সাইদুর রহমানের পরিচালনায় আরও বক্তব্য রাখেন- বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য আবু নাসের মোহাম্মদ রহমতুল্লাহ, ওলামা দলের সভাপতি অধ্যক্ষ মাওলানা শাহ নেসারুল হক ও তাঁতী দলের যুগ্ম আহ্বায়ক ড. কাজী মনিরুজ্জামান মনির, কৃষকদলের সহ-সাধারণ সম্পাদক এম জাহাঙ্গীর প্রমুখ।

Lab Scan