যশোর শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রে কিশোরের আত্মহত্যা

0

স্টাফ রিপোর্টার॥ যশোর শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে এক কিশোর। গতকাল সোমবার সকালে যখন কেন্দ্রের সকলে যখন মাঠে বিশ্ব ভালবাসা ও বসন্ত দিবসের অনুষ্ঠানে ব্যস্ত তখন সে তার কক্ষে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে। নিহত জহুরুল ইলাম (১৬) পাবনার বামুনডাঙ্গার আতাইকুলা গ্রামের জিলাল ম-লের ছেলে। শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রের সহকারী পরিচালক মঞ্জুরুল হাসান জানান, সকাল ১১টা ২০ মিনিটের দিকে জহুরুলের সঙ্গীরা কক্ষে গিয়ে তাকে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পায়। তারা তাকে ওই অবস্থা থেকে নামিয়ে কর্মকর্তাদের খবর দেয়। দ্রুত তাকে যশোর জেনারেল হাসপাতালে নেয়া হলে জরুরি বিভাগের চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। যশোর জেনারেল হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক ডা. আহমেদ তারেক শামস জানান, বেলা ১১টা ৫০ মিনিটের দিকে শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রের এক জনকে মৃত অবস্থায় হাসপাতালে আনা হয়। মরদেহ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। কেন্দ্রে সহকারী পরিচালক মঞ্জুরুল হাসান আরও জানান, আজ দিনব্যাপী কেন্দ্রের মাঠে বিশ্ব ভালবাসা ও বসন্ত দিবস উপলক্ষে অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছিল। সকালে ছিল ব্যাটমিন্টন প্রতিযোগিতার ফাইনাল খেলা। সকাল ১১টা পর্যন্ত খেলা চলে। ১১টা ২০ মিনিটের দিকে শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রের কপোতাক্ষ নামের ডরমেটরির দ্বিতীয় তলার ১০ নম্বর কক্ষে গিয়ে সঙ্গীরা জহুরুলকে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পায়। খেলার সময় সেও মাঠে ছিল। কোন এক সময় কক্ষে গিয়ে এ ঘটনা ঘটায়। সহকারী পরিচালক জানান, জহুরুলের পরিবারকে খবর দেয়া হয়েছে। যশোর কোতয়ালি থানায় এ ঘটনায় একটি অপমৃত্যু মামলা করা হবে। তিনি আরও জানান, জহুরুল হত্যা মামলার আসাসি ছিল। গত বছরের ৩০ নবেম্বর তাকে যশোর শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রে পাঠানো হয়। তবে কী কারণে এই কিশোর আত্মহত্যা করেছে তা বলতে পারেননি শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রের ওই কর্মকর্তা। যশোর কোতয়ালি থানার ওসি তাজুল ইসলাম বলেন, যশোর শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রে এক কিশোর আত্মহত্যা করেছে। কেন্দ্রের কর্মকর্তা ও পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে গেলে তার মৃত্যু হয়েছে বলে জানান জরুরি বিভাগের চিকিৎসক। মরদেহ ময়নাতদন্তের পর স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

Lab Scan