যশোর শহরে একই ভবনের দুই বাসায় চুরি

0

স্টাফ রিপোর্টার॥ যশোর শহরের মুজিব সড়কের একটি ভবনের দুটি বাসায় গত বুধবার রাতে দুঃসাহসিক চুরি হয়েছে। বাসায় কেউ না থাকার সুযোগে দুর্বৃত্তরা ভেতরে ঢুকে নগদ সোয়া এক লাখ টাকা ও ২০ ভরি সোনার অলঙ্কার চুরি করে নিয়ে গেছে। খবর পেয়ে বৃহস্পতিবার সকালে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে।
ক্ষতিগ্রস্ত বাড়ির মালিক মনিরামপুর উপজেলার খেদাপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান এস এম আব্দুল হক সাংবাদিকদের জানান, জাগরণী চক্র ফাউন্ডেশনের বিপরীতে মুজিব সড়কের তার তৃতীয়তলার একটি ভবন রয়েছে। তৃতীয়তলায় পরিবারসহ তিনি থাকেন। আর দ্বিতীয়তলায় সৈয়দ রিয়াজ আহমেদ নামে একজন ব্যবসায়ী ভাড়া থাকেন। গত বুধবার রাতে তৃতীয়তলার বাসায় তারা ও দ্বিতীয়তলার বাসায় ভাড়াটিয়ারা কেউ ছিলেন না। রাতে তিনি ঝুমঝুমপুরে একটি বাড়িতে ছিলেন। তার পরিবারের সদস্যরা ছিলেন মনিরামপুর উপজেলার খেদাপাড়ার গ্রামের বাড়িতে। অপরদিকে দ্বিতীয়তলার ভাড়াটিয়া ব্যবসায়ী সৈয়দ রিয়াজ আহমেদের মেয়ে ও স্ত্রী হজ পালন করতে সৌদি আরব গেছেন। এই সুযোগে মুখোশধারী দুজন দুর্বৃত্ত গ্রিলের তালা ও হ্যাজবোল্ড ভেঙে তার ও ভাড়াটিয়ার ঘরের ভেতর ঢোকে। দুবর্ৃৃত্তরা তার ঘর থেকে ২০ ভরি সোনার গহনা, নগদ ২ লাখ টাকা, মূল্যবান কাগজপত্র, ব্যাংকের কয়েকটি চেক বই নিয়ে গেছে। এছাড়া দ্বিতীয়তলার ভাড়াটিয়ার বাসা থেকে প্রায় ১০ হাজার টাকা চুরি করে নিয়ে গেছে দুর্বৃত্তরা। পরদিন বৃহস্পতিবার সকাল আটটার দিকে গৃহকর্মী নাসিমা তাদের বাসায় এসে ঘরের দরজা খোলা ও আসবাবপত্র এলোমেলো অবস্থায় দেখতে পান। বিষয়টি তাকে মোবাইল ফোন করে জানান ওই গৃহকর্মী। পরে তিনি বিষয়টি পুলিশকে জানান। খবর পেয়ে চাঁচড়া পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ ইনসপেক্টর আকিকুল ইসলাম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। পুলিশ ওই বাড়ির সিসি ক্যমেরার ফুটেজ সংগ্রহ করে নিয়ে গেছে। সিসি ফুটেজে দেখা গেছে, দুজন মুখোধারী দুর্বৃত্ত রাতে বাড়িতে ঢুকছে। এ বিষয়ে জানতে চাঁচড়া পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ ইনসপেক্টর আকিকুল ইসলামকে কয়েক দফা ফোনে কল দেয়া হলেও তিনি রিসিভ না করায় তার কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

Lab Scan