যশোর কালেক্টরেট স্কুলে পাঠচক্রের সমাপনী অনুষ্ঠানে মুগ্ধকর পরিবেশনা

0

স্টাফ রিপোর্টার ॥ সপ্তাহে একটি বই পড়ি শিরোনামে যশোর কালেক্টরেট স্কুলে এক বছর ধরে অনুষ্ঠিত পাঠচক্রের সমাপনী অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয় মঙ্গলবার। অনুষ্ঠানে পাঠচক্রে বই পড়ার পাশাপাশি অর্জিত সহশিক্ষার চমৎকার পরিবেশনা মুগ্ধ করে অতিথি ও দর্শকদের। অনুষ্ঠান সঞ্চালনার পাশাপাশি কিশোর শিক্ষার্থীরা পরিবেশন করে কবিতা ও নৃত্য।
মঙ্গলবার দুপুরে যশোর কালেক্টরেট স্কুল মিলনায়তনে সমাপনী অনুষ্ঠিত হয়। প্রধান অতিথি যশোরের জেলা প্রশাসক তমিজুল ইসলাম খান শিক্ষার্থীদের হাতে পাঠচক্রের সনদপত্র তুলে দেন।
এ সময় প্রধান অতিথি বলেন, ‘বই পড়লে মানুষ মানবিক হয়। পরিবার ও দেশের ভালো করবে এমন নাগরিক হতে হলে বই পড়ার অভ্যাস রপ্ত করতেই হবে। বই হলো সবচেয়ে ভালো শিক্ষক ও অভিভাবক। গুণী মানুষ হতে বই পড়তেই হবে।’
অনুষ্ঠানে পাঠচক্রের শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণে নৃত্য, কবিতা আবৃত্তি ও সংগীত পরিবেশিত হয়। ‘সপ্তাহে একটি বই পড়ি’ নামের সংগঠনের পরিচালনায় ২০২১ সালের ৪ জুলাই যশোর জেলা প্রশাসন পরিচালিত যশোর কালেক্টরেট স্কুলের বাছাই করা ৩০ শিক্ষার্থী নিয়ে বাংলাদেশে ছোটদের প্রথম পাঠচক্র ‘অধ্যয়নসভা’ নামে যাত্রা শুরু করে। যা গত বছরের ১২ জুলাই শেষ হয়। এ সময়ের মধ্যে এই শিক্ষার্থীরা বিখ্যাত ১২টি বই পড়ে কখনো বিদ্যালয়ের মাঠে সবুজ ঘাসে বসে আবার কখনো দূরে কোথাও গিয়ে সাহিত্য পাঠচক্র করেছে।
পাঠচক্রের সমাপনী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন যশোর কালেক্টরেট স্কুলের অধ্যক্ষ মো. মোদাচ্ছের হোসেন। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন প্রবীণ শিক্ষাবিদ অধ্যাপক মুস্তাফিজুর রহমান, স্থানীয় সরকার বিভাগ যশোরের উপ-পরিচালক হুসাইন শওকত, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি), যশোর মোহাম্মদ মনোয়ার হোসেন। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন যশোর প্রেসক্লাবের সভাপতি জাহিদ হাসান টুকুন, সপ্তাহে একটি বই পড়ি’র প্রতিষ্ঠাতা শাহ্জাহান কবীর, জয়তী সোসাইটির নির্বাহী পরিচালক অর্চনা বিশ্বাস, প্রথম আলোর যশোর প্রতিনিধি মনিরুল ইসলাম প্রমুখ। স্বাগত বক্তব্য দেন অধ্যয়নসভার শিক্ষা সহযোগী সুমন রেজা। পাঠচক্র শিক্ষার্থীদের মধ্যে গান, নৃত্য ও আবৃত্তি পরিবেশন করে প্রীতিলতা দাস, রুপান্না আক্তার, মায়িশা ফাহমিদা সারথি, তাসনিম আক্তার ও জান্নাতুন নাঈম।
অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন অধ্যয়ন সভার বন্ধু শেখ নিশাত নাজিয়া ও ইরণা ফাইজা।

 

Lab Scan