যশোরে স্বেচ্ছাসেবক দলের সমাবেশে নেতৃবৃন্দ আওয়ামী লীগ উন্নয়নের নামে লুটপাট করে দেশকে অকার্যকর রাষ্ট্রে পরিণত করেছে

0

 

স্টাফ রিপোর্টার ॥ যশোরে জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দলের ৪২তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর গণসমাবেশে নেতৃবৃন্দ বলেছেন, আওয়ামী লীগ উন্নয়ন করতে করতে দেশটা দেউলিয়া বানিয়ে ফেলেছে। তথাকথিত উন্নয়নের নামে তারা লুটপাট বাংলাদেশকে অকার্যকর রাষ্ট্রে পরিণত করেছে। যাদুঘরে পাঠানো তাদের লোডশেডিং ফিরে এসেছে। দেশ আজ অন্ধকারে নিমজ্জিত হয়ে গেছে।
শুক্রবার জেলা স্বেচ্ছাসেবক দল আয়োজিত গণসমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু। জেলা বিএনপি কার্যালয়ের সামনে অনুষ্ঠিত গণসমাবেশে শামসুজ্জামান দুদু বলেন, দেশে মানবাধিকার পরিরস্থিতি এতটাই উদ্বেগজনক যে, ৫০ বছরের ইতিহাসে জাতিসংঘের মানবাধিকার কমিশনের প্রধান প্রথমবারের মত বাংলাদেশ সফর করেছেন। তিনি মানবাধিকার লংঘনের অভিযোগ তুলে নিরপেক্ষ তদন্ত কমিশন গঠনের কথা বলেছেন। আওয়ামী লীগের পায়ের নিচে মাটি নেই। বিদেশী প্রভুদের অনুকম্পা আর পেশি শক্তির বলে টিকে আছে। তাদের বিদায়ের সময় এসেছে। সময় থাকতে বিদায় না নিলে জনগণ তাদের আস্তাকুড়ে নিক্ষেপ করবে।
সমাবেশে বিশেষ অতিথির বক্তৃতায় বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা সৈয়দ মেহেদী আহমেদ রুমি বলেন, স্বৈরাচার পতনের আন্দোলন শুরু হয়ে গেছে। তাদের পতন নিশ্চিত না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন অব্যাহত থাকবে। প্রয়োজনে রাজপথে বুকের তাজা রক্ত ঢেলে দিয়ে পতন নিশ্চিত করবো ইনশায়াল্লাহ।
প্রধান বক্তার বক্তৃতায় বিএনপির খুলনা বিভাগীয় ভারপ্রাপ্ত সাংগঠনিক সম্পাদক অনিন্দ্য ইসলাম অমিত বলেন, বর্তমান সরকার প্রকৃতপক্ষে জনগণের প্রতিনিধিত্ব করে না। তাদের কাছে জনগণের কোন দাবি জানিয়ে লাভ হবে না। গণআন্দোলনের মাধ্যমে তাদের পতন নিশ্চিত করতে পারলেই কেবল সকল দাবি পূরণ হবে।
গণসমাবেশে জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি রবিউল ইসলামের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন জেলা বিএনপির সদস্য সচিব অ্যাড. সৈয়দ সাবেরুল হক সাবু, নগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক এহসানুল হক সেতু, জেলা যুবদলের সভাপতি এম তমাল আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক আনসারুল হক রানা, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সিনিয়র সহ-সভাপতি নির্মল কুমার বিট, সাংগঠনিক সম্পাদক আলী হায়দার রানা, যুগ্ম-সম্পাদক রেজোয়ানুল ইসলাম খান রিয়েল, সদর উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের আহ্বায়ক শফিকুল ইসলাম, নগর স্বেচ্ছাসেবক দলের সদস্য সচিব সাইফুল বাশার সুজন, স্বেচ্ছাসেবক দল নেতা জাকির হোসেন, শামসুল আলম প্রমুখ। সমাবেশ পরিচালনা করেন, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা আমির ফয়সাল।

Lab Scan