যশোরে যুবক খুন হওয়ার ৫ মাস পর থানায় মামলা

0

 

 

স্টাফ রিপোর্টার ॥ যশোর সদর উপজেলার রামনগর ইউনিয়নের কামালপুর গ্রামের ফারুক হোসেন (৩২) নামে এক যুবকের গাছ থেকে ঝুলন্ত লাশ উদ্ধারের ৫ মাস পর  সোমবার রাতে কোতয়ালি থানায় হত্যা মামলা করেছেন তার মা আয়েশা খাতুন। পুলিশ লাশের ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন পাবার প্রেক্ষিতে তিনি এই মামলা দায়ের করেন। মামলায় অজ্ঞাতনামাদের আসামি করা হয়েছে। আয়েশা খাতুন একই গ্রামের মৃত নুরোর স্ত্রী।  মামলায় আয়েশা খাতুন উল্লেখ করেছেন, তার ছেলে ফারুক নার্সারির ব্যবসা করতেন। গত ১৭ জুন রাত সাড়ে ১০টার দিকে খাওয়া দাওয়া শেষে বাড়ির বাইরে যান। কিন্তু ফারুক আর বাড়িতে ফিরে আসেননি। অনেক খোঁজাখুঁজির পর ১৮ জুন সকাল ৭টার দিকে ভাটপাড়া গ্রামের দক্ষিণপাড়ার জনৈক অধিরের বাড়ির পাশের পুকুরপাড়ে আতাগাছে লাইলনের দড়ি দিয়ে ফাঁস দেয়া অবস্থায় তার লাশ ঝুলতে দেখা যায়। পরে খবর পেয়ে পুলিশ সেখানে এসে লাশটি উদ্ধার করে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যায়। পরবর্তীতে ময়নাতদন্ত শেষে পরিবারের কাছে লাশ হস্তান্তর করে পুলিশ। এরপর লাশ বাড়িতে এনে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়। ওই নারীর অভিযোগ, অজ্ঞাতনামা আসামিরা তার ছেলেকে হত্যার পর লাশটি আতাগাছের সাথে ঝুলিয়ে রেখেছিলো।  নিহতের ভগ্নিপতি রবিউল ইসলাম জানান, গত সোমবার পুলিশ তাদের বাড়িতে এসেছিলো। তাদেরকে বলা হয়, ময়নাতদন্তের প্রতিবেদনে ফারুককে শ্বাসারোধে হত্যার কথা উল্লেখ করা হয়েছে। এর প্রেক্ষিতে তার শাশুড়ি থানায় হত্যা মামলা করেছেন।

 

 

Lab Scan