যশোরে মূল্যবৃদ্ধির কারণে অপরিপক্ব মুড়িকাটা পেঁয়াজ কিনে ঠকছে ক্রেতা

0

আকরামুজ্জামান ॥ ভারত সরকার গত শুক্রবার পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধের সিদ্ধান্ত জানানোর পর সারা দেশের মতো যশোরের বাজারেও চড়া দামে পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে। মাত্র এক দিনের ব্যবধানে পুরোনো দেশি ও ভারত থেকে আমদানি করা পেঁয়াজের দাম রাতারাতি কেজিপ্রতি ৮০ টাকা পর্যন্ত বেড়ে যায়। যা বর্তমানে বাজারে অভিযানের ফলে ১৮০ তে নেমে এসেছে।
পেঁয়াজের এ উচ্চমূল্যের অজুহাতে যশোরের বাজারগুলোতে অপরিপক্ব মুড়িকাটা পেঁয়াজও বেশি দামে বিক্রি হচ্ছে। তবে মুড়িকাটা পেঁয়াজের সরবরাহ স্বাভাবিক হতে আরও সপ্তাহখানেক সময় লাগবে বলে ব্যবসায়ীরা জানান।
যশোর বড়বাজারসহ আশপাশের বাজারগুলোতে খোঁজ নিয়ে দেখা গেছে, খুচরা বাজারে প্রতিকেজি মুড়িকাটা পেঁয়াজ ১৩০ থেকে ১৪০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।
যশোর বড়বাজারের সবজি বিক্রেতা আবু হাসান জানান, গত রোববার থেকে যশোরের বাজারে দেশি মুড়িকাটা পেঁয়াজ ঢুকেছে। এসব পেঁয়াজ এখনো বাজারে তোলার মতো না হলেও পুরনো পেঁয়াজের দাম বেশি হওয়ায় কৃষকরা লাভের আশায় ক্ষেত থেকে তুলে এনে পাইকারদের কাছে সরবরাহ করছেন। প্রতিকেজি পেঁয়াজ খুচরা পর্যায়ে ১৩০ থেকে ১৪০ টাকার মধ্যে বিক্রি হচ্ছে। দেশি পুরোনো পেঁয়াজ ও ভারতীয় পেঁয়াজের তুলনায় এর দাম বেশ কম হওয়ায় ক্রেতারাও এই পেঁয়াজ কিনতে আগ্রহী হচ্ছেন বলে তিনি জানান।
তবে এসব পেঁয়াজ যারা কিনে নিয়ে যাচ্ছেন তাদের অনেকেই বাজারে এসে ব্যবসায়ীদের কাছে এসে ক্ষোভ ঝাড়ছেন। বড়বাজারে কথা হয় শরিফুল ইসলাম নামে একজন ক্রেতার সাথে। তিনি বলেন, মুড়িকাটা পেঁয়াজের দাম কম বলে ক্রেতারা বেশি কিনছেন। তবে এ পেঁয়াজ এখনো খাওয়ার উপযোগী হয়নি। তারপরও মানুষ কিছুটা সাশ্রয়ের জন্য এ পেঁয়াজ কিনে নিয়ে যাচ্ছেন বলে তিনি জানান।
এ ব্যাপারে জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপপরিচালক (ভারপ্রাপ্ত) সুশান্ত কুমার তরফদার বলেন, যশোরের বাজারগুলোতে এই মুহূর্তে যেসব মুড়িকাটা পেঁয়াজ দেখা যাচ্ছে তা অধিকাংশই আমাদের পার্শ্ববর্তী জেলা ফরিদপুর অঞ্চলের । ফরিদপুরে আগাম জাতের এসব পেঁয়াজ তুলে তা বিভিন্ন এলাকায় সরবরাহ করা হচ্ছে। তিনি বলেন, যশোরে চলতি মৌসুমে ১৫শ হেক্টর জমিতে মুড়িকাটা পেঁয়াজ চাষের টার্গেট ধরা হয়েছে। ইতোমধ্যে ৮৪০ হেক্টর জমিতে চাষ হয়েছে। বাকিগুলো আগামী দুই সপ্তাহের মধ্যে রোপণ করা হবে। তিনি বলেন, যশোরের এসব মুড়িকাটা পেঁয়াজ পরিপূর্ণভাবে বাজারে আসতে আরও দুই মাস অপেক্ষা করতে হবে।

Lab Scan