যশোরে বঙ্গবন্ধু ওলামা পরিষদের নেতাকে জখমের ঘটনায় মামলা, আসামি ৫

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ মাদক কেনাবেচা করতে নিষেধ করায় বঙ্গবন্ধু ওলামা পরিষদের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল গফফার সরদারকে (৪৫) মারপিট ও কুপিয়ে জখম করার অভিযোগে কোতয়ালি থানায় মামলা হয়েছে। গফফার যশোর সদর উপজেলার মন্ডলগাতী গ্রামের আব্দুল হাকিমের ছেলে।
আসামিরা হলো মন্ডলগাতী পূর্বপাড়ার খোকনের ছেলে শিমুল হোসেন (৩০), একই এলাকার টুটুল মিয়া (৩০), আব্দুর রবের দুই ছেলে গোলাম রসুল (২৬) ও রাসেল (২২) এবং জাকির হোসেনের ছেলে শামীম হোসেন (২০)। এজাহারে উল্লেখ করা হয়েছে, আসামিরা গফফারের প্রতিবেশী। তারা মাদক দ্রব্য কেনাবেচা করে থাকে। তিনি তাদের মাদক বিক্রি করতে নিষেধ করেন। এতে তারা ক্ষিপ্ত হয়। গত ১১ জানুয়ারি তিনি খোলাডাঙ্গা থেকে মন্ডলগাতী বাজারে যাচ্ছিলেন। সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে গ্রামের রেজাউল মিস্ত্রির বাড়ির সামনে পৌছালে আসামিরা তাকে ঘিরে ধরে এবং লাঠি সোটা ও লোহার রড দিয়ে পিটিয়ে জখম করে। পরে একটি গাছিদা দিয়ে তাকে তাকে কোপ দিয়ে রক্তাক্ত জখম করে। তার চিৎকারে আশেপাশের লোকজন এগিয়ে আসলে আসামিরা পালিয়ে যায়। পরে তাকে উদ্ধার করে যশোর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে লোকজন। তিনি কিছুটা সুস্থ হয়ে থানায় মামলা করেন।

ভাগ