যশোরে চোর সিন্ডিকেটের প্রধান রবিউলের বিরুদ্ধে হয়রানির অভিযোগ

0

 

স্টাফ রিপোর্টার ॥ যশোর সদরের নূরপুর মাঠপাড়ার বহুল আলোচিত ইজিবাইক চোর সিন্ডিকেটের প্রধান রবিউল ইসলামের বিরুদ্ধে নিরীহ মানুষকে পুলিশ দিয়ে হয়রানির অভিযোগ উঠেছে। রবিউল ওই গ্রামের জামাল গাজী ওরফে কানা জামালের ছেলে। সে আন্তঃজেলা ইজিবাইক চোর সিন্ডিকেটের প্রধান হিসেবে পরিচিতি পেয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। রোববার সকালে প্রেস ক্লাব যশোরে সদর উপজেলার ডাকাতিয়া গ্রামের আব্দুল মজিদ মোল্যা সংবাদ সম্মেলনে এমন অভিযোগ করেন।
সংবাদ সম্মেলনে আব্দুল মজিদ মোল্যা বলেন, নূরপুর গ্রামের জামাল গাজী ওরফে কানা জামালের ছেলে রবিউল ইসলাম খুলনা বিভাগীয় চোর সিন্ডিকেটের সদস্য। সে একাধিকবার চুরির অভিযোগে ডিবি পুলিশের হাতে আটক হয়। এর মধ্যে শুধুমাত্র কোতয়ালি থানার পুলিশ তার বাড়ি থেকে বিভিন্ন সময়ে চোরাই ৯টি অটোভ্যান ও ৬টি অটোরিকশা উদ্ধার করে। রবিউলের এসব অপকর্মের বিষয়ে প্রতিবাদ করায় ষড়যন্ত্র করে তার ছেলে সজিবকে মাদকের মামলা দিয়ে হয়রানি করা হচ্ছে। বিভিন্ন পুলিশের সাথে সম্পর্ক থাকার কারণে সে এসব কর্মকান্ড করছে বলে তিনি অভিযোগ করেন। লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, ইতোমধ্যে চোর সিন্ডিকেটের সদস্য রবিউলের ষড়যন্ত্রে তার ছেলেকে যশোর র‌্যাব অফিসে ডেকে নিয়ে যাওয়া হয়। পরে তদন্ত করে তার বিরুদ্ধে কোনো অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় ছেড়ে দেয়া হয়। সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ করা হয়, রবিউলের বিরুদ্ধে যশোরসহ আশপাশের বিভিন্ন জেলায় একাধিক চুরির মামলা রয়েছে। সংবাদ সম্মেলন থেকে চোরচক্রের হোতা রবিউল ইসলাম ও তার অন্য সদস্যদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য প্রশাসনের প্রতি আহ্বান জানানো হয়।

 

Lab Scan