যশোরে করোনা রোগীর আত্মহত্যা

0

স্টাফ রিপোর্টার॥ যশোরে হাবিবুর রহমান (৪৮) নামে এক করোনা আক্রান্ত রোগী আত্মহত্যা করেছেন। পারিবারিক কলহের জের ধরে মঙ্গলবার গভীর রাতে নিজ বাড়িতে গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করেন। হাবিবুুর রহমান যশোর সদর উপজেলার খোলাডাঙ্গা গ্রামের হাজী ওয়াজেদের ছেলে।
মৃত হাবিবুর রহমানের ভাই জিয়াউর রহমান জানান, তার বড় ভাই হাবিবুর রহমান গত ৩১ জুলাই করোনা পজেটিভ হয়ে বাড়িতে ছিলেন। গত মঙ্গলবার দিবাগত রাত ৪ টার দিকে ঘরের ভেতর আড়ায় দড়ি দিয়ে গলায় ফাঁস দেন। বিষয়টি দেখে তার স্ত্রী রেহেনা বেগম চিৎকার করেন। তখন বাড়ির অন্যরা ছুটে আসেন। এঘটনার পিছনে পারিবারিক কলহ থাকতে পারে বলে জানিয়েছন ছোট ভাই জিয়াউর রহমান।
আরবপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শাহারুল ইসলাম জানান, হাবিবুর করোনা আক্রান্ত হয়ে বাড়িতে চিকিৎসা নিচ্ছিলেন। তার খাবারের জিনিসপত্র ও ঘর আলাদা করে দেওয়ায় তিনি আত্মহত্যা করেছেন বলে জেনেছি।
কোতয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. তাজুল ইসলাম জানান, করোনা আক্রান্ত হাবিবুর গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। তার লাশ উদ্ধার করে পোস্টমর্টেম করা হয়েছে। শুনেছি তার স্ত্রী রেহেনা তার স্বামীকে বাড়িতে থেকে চিকিৎসা না নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়ে চিকিৎসা নিতে বলে ছিলেন। এতে অভিমান করে তিনি আত্মহত্যা করেছেন।
যশোর আড়াইশ শয্যা জেনারেল হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক আবদুর রশিদ জানান, হাবিবুর রহমান করোনা পজেটিভ ছিলেন। তার গলায় দড়ির দাগ রয়েছে।

Lab Scan