যশোরের ঝিকরগাছায় বর্গাচাষির সাড়ে ৩বিঘা জমির বোরো ধান পুড়িয়ে দিয়েছে দূর্বৃত্তরা

0

তরিকুল ইসলাম, ঝিকরগাছা (যশোর)॥ এ কেমন শত্রুতা। যশোরের ঝিকরগাছায় বর্গাচাষির কৃষকের সাড়ে ৩বিঘা জমির অর্ধপাকা ইরিবোরো ধান পুড়িয়ে নষ্ট করে দিয়েছে অজ্ঞাতনা দূর্বৃত্তরা। ফলে স্বপ্œভঙ্গ কৃষক আয়ুব হোসেন চরম হতাসাগ্রস্থ হয়ে পড়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে, উপজেলার শিমুলিয়া ইউনিয়নের রাজাপুর গ্রামে। জানাগেছে, চলতি ইরিবোরো মৌসুমে উপজেলার রাজাপুর গ্রামের মৃত-হিরাজ আলী মোড়লের ছেলে আয়ুব হোসেন প্রতিবেশিদের নিকট থেকে প্রায় ৫ বিঘা জমি বর্গানিয়ে ইরিবোরো ধান চাষ করেছেন। ইতিমধ্যে ধানচাষের সকল খরচ শেষ হয়েছে। স্বপ্œ দেখছিলেন আর মাত্র কয়েকদিনের মাথায় নতুনধান ঘরে তোলার। কিন্তু অজ্ঞতনামা দূর্বূৃত্তরা কর্তৃক রাতের আধারে তার প্রায় সাড়ে ৩বিঘা জমির অর্ধপাকা ধানে ক্ষতিকর রাসায়নিক স্প্রে করে পুড়িয়ে দেয়া হয়েছে। ক্ষতিগ্রস্থ কৃষক ও স্থানীয় চাষিদের ধারণা গ্রামোক্সন নামক (ঘাসমারা) কীটনাশক ছিটিয়ে ধান পুড়িয়ে দেয়া হয়েছে। ধান পুড়িয়ে দেয়ার ঘটনায় বৃহস্পতিবার দুপুরে ক্ষতিগ্রস্থ দরিদ্র কৃষক আয়ুব হোসেন বাদি হয়ে অজ্ঞাতনামাদের বিরুদ্ধে ঝিকরগাছা থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। এতে তিনি ক্ষয়ক্ষতির পরিমান দেখিয়েছেন প্রায় দেড় লাখ টাকা। জানতে পেরে বৃহস্পতিবার দুপুরে সরেজমিনে ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখাগেছে, কৃষক আয়ুব হোসেনের অর্ধপাকা সাড়ে ৩বিঘা জমির ধানের পুরোটায় বিবর্ণ হয়ে পড়েছে। দরিদ্র কৃষক আয়ুব হোসেন তার প্রতিবেশি মোস্তফা বিশ^াস, আলী হোসেন ও নিয়ামত আলীর নিকট থেকে বাৎসরিক বর্গানিয়ে বেশ কয়েকবছর ধরে ওই জমিতে চাষাবাদ করে আসছেন। প্রতিবিঘা জমি বাবদ মালিকদেরকে বছরে ১৪মন ধান দিতে হয় তাকে। চলতি ইরিবোরো মৌসুমে সার কীটনাশক ও সেচসহ মজুরবাবদ চাষাবাদে তার খরচ হয়েছে প্রায় ৭০ হাজার টাকা। যা দায়দেনা করে আবাদের খরচ মিটিয়েছেন বলে দাবি করেছেন ক্ষতিগ্রস্থ কৃষক আয়ুব হোসেন। এ ব্যাপারে ঝিকরগাছা উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ জাহিদ হোসেন পলাশকে এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত তাকে কেউ কিছু জানায়নি বলে জানিয়েছেন।

Lab Scan