যশোরের চাঁচড়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় দুই ব্যবসায়ী হতাহত

0

স্টাফ রিপোর্টার ॥ বৃহস্পতিবার দুপুরে যশোর চাঁচড়া বাবলাতলায় সড়ক দুর্ঘটনায় আব্দুর রাজ্জাক (৪০) নামে এক ব্যবসায় নিহত ও অপর একজন গুরুতর আহত হয়েছেন। এ সময় নিহতের ১ লাখ ৫০ হাজার টাকা খোয়া গেছে। মোটরসাইকেলে যাওয়ার সময় বিপরীত দিক থেকে আসা মাটি বোঝাই ট্রাকের সাথে মুখোমুখি সংঘর্ষ হলে এ দুর্ঘটনা ঘটে।
নিহত আব্দুর রাজ্জাক (৪০) যশোরের বাঘারপাড়া উপজেলার জামালপুর গ্রামের জহুরুল ইসলাম মোল্যার পুত্র। আহত মুরাদ হোসেন (৪০) একই উপজেলার দোহাকোলা গ্রামের রবিউল ইসলামের পুত্র। মুরাদ হোসেন জানিয়েছেন, তারা দু’জনই কৃষি কাজের পাশাপাশি রাখি মালের ব্যবসা করেন। আব্দুর রাজ্জাক শহরের চাঁচড়া বাবলাতলায় একটি গ্যারেজে ট্রলির বডি তৈরি করতে দিয়েছেন। তারা দু’জন মোটরসাইকেলে চাড়াভিটা বাজার থেকে ওই ট্রলি নিতে আসছিলেন। দুপুর ১২টার দিকে চাঁচড়া বাবলাতলা মোড়ে পৌঁছালে মাটি বোঝাই একটি ট্রাক চাঁচড়া মোড়ের দিক থেকে মুড়লীর দিকে যাওয়ার পথে মোটরসাইকেলের সাথে ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এসময় গুরুতর আহত হন মোটরসাইকেল আরোহী আব্দুর রাজ্জাক ও মুরাদ হোসেন। স্থানীয় লোকজন তাদের যশোর ২৫০ শয্যা হাসপাতালে ভর্তি করেন। হাসপাতালে ভর্তি করার পর আব্দুর রাজ্জাকের অবস্থার অবনতি ঘটে। চিকিৎসক তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করেন। স্বজনরা ঢাকায় নিয়ে যাওয়ার সময় পথের মাঝে যশোর-নড়াইল সড়কের চাড়াভিটা বাজারের অদূরে পৌঁছুলে অ্যাম্বুলেন্সের ভেতর তিনি মৃত্যুবরণ করেন। আহত মুরাদ হোসেন ২৫০ শয্যা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। তার একটি পা ভেঙে গেছে।
মুরাদ হোসেন জানিয়েছেন, ট্রলি নেয়ার জন্য আব্দুর রাজ্জাকের কাছে ছিল ১ লাখ ৫০ হাজার টাকা। কিন্তু ওই টাকা খোয়া গেছে। কে বা কারা তার কাছে থাকা টাকা নিয়ে গেছে। স্বজনদের ধারণা যারা তাকে হাসপাতালে আনছিল তারাই হয়তো এ টাকা নিতে পারে।
যশোরের নওয়াপাড়া হাইওয়ে পুলিশের এসআই শাহআলম জানিয়েছেন, এ ঘটনায় মামলা দায়ের করবেন। তার পরিবারের পক্ষ থেকে রাজি না হওয়ায় বিনা ময়নাতদন্তে লাশ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

 

Lab Scan