মোড়েলগঞ্জে বৃদ্ধকে গলা কেটে হত্যা

0

লোকসমাজ ডেস্ক॥ বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জের পল্লীতে মোখলেছুর রহমান খান (৭০) নামে এক বৃদ্ধকে গলা কেটে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা।
মঙ্গলবার বেলা পৌনে বারোটার দিকে উপজেলার তেলিগাঁতি ইউনিয়নের মধ্যম তেলিগাঁতি গ্রাম থেকে ওই বৃদ্ধের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।
দুপুরে ময়নাতদন্তের জন্য তার মরদেহ বাগেরহাট সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।
সোমবার রাতের কোনো এক সময়ে দুর্বৃত্তরা ওই বৃদ্ধকে গলা কেটে হত্যা করেছে বলে পুলিশ ধারণা করছে। তবে কারা কি কারণে এই বৃদ্ধকে হত্যা করেছে তা পুলিশ বলতে পারেনি।
নিহত মোখলেছুর রহমান মোরেলগঞ্জ উপজেলার তেলিগাঁতি ইউনিয়নের মধ্যম তেলিগাঁতি গ্রামের প্রয়াত আব্দুর রহিম খানের ছেলে। তিনি পেশায় একজন কবিরাজ ছিলেন।
স্থানীয়দের বরাতে মোরেলগঞ্জ থানার ওসি মো. সাইদুর রহমান বলেন, মোরেলগঞ্জ উপজেলার তেলিগাঁতি ইউনিয়নের মধ্যে তেলিগাঁতি গ্রামের বাসিন্দা মোখলেছুর রহমান খান একাই তার বাড়িতে বাস করতেন।
মঙ্গলবার সকালে প্রতিবেশী সম্পর্কের এক ভাতিজা মোখলেছকে ডাকতে তার বাড়িতে যান। ডাকাডাকি করে কোনো সাড়াশব্দ না পেয়ে তার রান্না ঘরে গিয়ে দেখেন মোখলেছ উপুড় হয়ে আছেন আর পাশে রক্ত গড়িয়ে পড়ছে। তখন ওই প্রতিবেশী ভাতিজা তাকে ধরে সোজা করতেই দেখেন তার গলাকাটা। ওই প্রতিবেশীর মাধ্যমে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য বাগেরহাট সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।
নিহত মোখলেছুর পেশায় একজন কবিরাজ ছিলেন। বাড়িতে কেউ না থাকার সুযোগে দুর্বৃত্তরা এই বৃদ্ধকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে গলা কেটে হত্যা করেছে।
তবে কেন কী কারণে দুর্বৃত্তরা এই বৃদ্ধকে হত্যা করেছে তা এখনই বলা যাচ্ছে না। হত্যার কারণ জানতে পুলিশ তদন্ত শুরু করেছে।
নিহতের স্ত্রী, চার মেয়ে ও তিন ছেলে রয়েছে। তারা কেউ এই বাড়িতে থাকেন না বলে জানান এই পুলিশ কর্মকর্তা।

Lab Scan