মহম্মদপুরে চাঁদাবাজি অভিযোগে চার ভুয়া সাংবাদিক আটক

0

মহম্মদপুর (মাগুরা) সংবাদদাতা॥ মাগুরার মহম্মদপুর উপজেলায় চাঁদাবাজির অভিযোগে নারীসহ কথিত (ভুয়া) চারজন সাংবাদিককে আটক করেছে থানা পুলিশ। তারা সাংবাদিক পরিচয়ে উপজেলার নহাটা, রাজাপুর ও বিনোদপুরসহ বিভিন্ন মাদ্রাসা থেকে নগদ অর্থ হাতিয়ে নেন। শুক্রবার দিবাগত রাত ৯ টার দিকে উপজেলার ধোয়াইল গোরস্তান মহাম্মাদিয়া হাফেজিয়া এতিমখানা মাদ্রাসা থেকে তাদের আটক করা হয়।
আটকরা হলেন- বরিশাল জেলার আগোলঝাড়া উপজেলার সিরাল গ্রামের মৃত্যু নুরুল ইসলামের ছেলে শহিদুল সাগর (৪৪), ময়মনসিংহের ভালুকা উপজেলার বহুলি গ্রামের গোলাম মোস্তফার মেয়ে মমতাজ নাহার (৩৪), চুয়াডাঙ্গার জীবননগর উপজেলার শুটিয়া গ্রামের খোরশেদ আলমের ছেলে সেলিম রেজা (২৮) এবং টাঙ্গাইলের গোপালপুর উপজেলার জাঙ্গালিয়া গ্রামের হামিদ আলীর ছেলে হোসেন আলী পিন্টু (২৮)।
আটকের সময় তাদের বহনকারী একটি প্রইভেটকার, ক্যামেরা, মোবাইল ফোন, চার্জার, বুম, এবং ঈঘড ঞঠ (২৪/৭ ঘঊডঝ ঞঠ) এর আইডি কার্ডসহ নগদ ১১ হাজার টাকা জব্দ করা হয়েছে। এরআগেও তারা উপজেলার বিভিন্ন এলাকার হাফেজিয়া ও এতিমখানা মাদ্রাসা থেকে ভয়ভীতি দেখিয়ে চাঁদাবাজি করেছেন।
পুলিশ জানায়, ঈঘড ঞঠ পরিচয় দিয়ে এরা চারজন উপজেলার বিভিন্ন এলাকার হাফেজিয়া ও এতিমখানা মাদ্রাসায় গিয়ে নানা অনিয়ম ও দুর্নীতি চলছে এমন অভিযোগ তুলে মাদ্রাসার কমিটি এবং দায়িত্বপ্রাপ্তদের কাছে সাংবাদিক পরিচয়ে বিভিন্ন তথ্য-উপাত্ত চান। না দিতে পারলে তাদের কাছ থেকে নগদ টাকা হাতিয়ে নেয়া হয়। পরে ধোয়াইল গ্রামে আসলে তাদের গতিবিধি সন্দেহজনক হওয়ায় গ্রামবাসী পুলিশকে খবর দেয়। পুলিশ এসে ধোয়াইল গোরস্তান মহাম্মাদিয়া হাফেজিয়া এতিমখানা মাদ্রাসা থেকে তাদের আটক করে। জিজ্ঞাসাবাদে তারা টাকা হাতিয়ে নেয়ার বিষয়টি স্বীকার করেন।
এ বিয়য়ে অফিসার ইনচার্জ অসিত কুমার রায় জানান, শহিদুল সাগর, মমতাজ নাহার, সেলিম রেজা ও হোসেন আলী পিন্টু উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় গিয়ে সাংবাদিক পরিচয় দিয়ে চাঁদাবাজি করেন। পরে তাদেরকে ধোয়াইল গোরস্তান মেহাম্মাদিয়া হাফেজিয়া এতিমখানা মাদ্রাসা থেকে আটক করা হয়েছে।

Lab Scan