মনোনয়ন না পেয়ে নিজের ফাঁসি চাইলেন আ.লীগ নেত্রী

একাদশ জাতীয় সংসদের সংরতি নারী আসনে মনোনয়ন না পেয়ে নিজের ফাঁসি চেয়েছেন এক আওয়ামী লীগ নেত্রী। গতকাল শনিবার সন্ধ্যায় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ‘আমার ফাঁসি চাই’ শিরোনামে একটি স্ট্যাটাস দিয়ে আলোচনায় এসেছেন তিনি। আলোচিত এই নেত্রীর নাম নাজনীন আলম। তিনি ময়মনসিংহ জেলা আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য।
নিজের ফাঁসি চাওয়ার কারণ হিসেবে নিজের ১০টি ভুল বা অপরাধ তুলে ধরেছেন নাজনীন আলম। তিনি ফেসবুকে লেখেন,
‘আমার ফাঁসি চাই!!
১. কেন হাইকমান্ডের আশ্বাসকে সরল মনে বিশ্বাস করেছিলাম!
২. এলাকাবাসী ও দলীয় নেতাকর্মীদের পাশে থাকার প্রয়োজন কেন অনুভব করেছিলাম!
৩.এমপি বা সিনিয়র কোনো নেতার পরিবারের সদস্য কেন আমি হলাম না!
৫. কেন দলের নাম ভাঙিয়ে একটি পয়সা রোজগারের ধান্দা করিনি!
৬. কেন দলের জন্য কাজ করতে গিয়ে দিনে দিনে নিঃস্ব হতে গেলাম!
৭. কেন জনসমর্থন অর্জনের চেষ্টা করেছিলাম!
৮. কেন দলের ভোট ব্যাংক সমৃদ্ধ করতে সদা তৎপর ছিলাম!
৯. কেন তদবির/তেলবাজি ঠিকমতো করতে পারলাম না!
১০. কেন সমর্থকদের বারবার কাঁদাচ্ছি!
সম্ভবত এসবই আমার ভুল ও অপরাধ! এজন্য আমার শাস্তি হওয়া উচিত।’
রোববার দুপুরে নাজনীন আলমের সঙ্গে সাংবাদিকদের মুঠোফোনে কথা হলে তিনি তার আইডিতে দেওয়া স্ট্যাটাসের সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, ছাত্র জীবনে ছাত্রলীগের রাজনীতির সাথে জড়িত ছিলেন। এরপর অনেক চড়াই উতরাই পেরিয়ে বর্তমানে তিনি ময়মনসিংহ জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য নির্বাচিত হন। এর আগে তিনি ময়মনসিংহ-৩ (গৌরীপুর) আসন থেকে মনোনয়ন চেয়ে বঞ্চিত হন। পরে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করে সামান্য ভোটের ব্যবধানে পরাজিত হন। এরপর থেকে তিনি গৌরীপুরে ব্যাপক আলোচিত ছিলেন। এই অবস্থায় সাবেক এমপি ও স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী ক্যাপ্টেন মজিবুর রহমান মারা যান। তখন উপ নির্বাচনে তিনি আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী ছিলেন।
নাজনীন আলম আরও জানান, ২০১৬ সালে উপ নির্বাচনে ময়মনসিংহের প্রবীণ রাজনৈতিক নাজিম উদ্দিনকে মনোনয়ন দিলে নাজনীন ফের বঞ্চিত হন। তখনও তাকে দল থেকে পরেরবার এমপি মনোনয়ন দেওয়া হবে মর্মে আশ্বস্ত করা হয়। সেই আশায় থেকে ২০১৮ সালে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তিনি মনোনয়ন চান। কিন্তু এবারও তাকে বঞ্চিত করে নাজিম উদ্দিন আহমেদকে মনোনয়ন দেওয়া হয়। সেই সঙ্গে সংরতি আসনে মনোনয়ন দেওয়ার কথা বলে নাজনীনকে আশ্বস্ত করা হয়। তিনি নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থীর পে কাজ করেন। সম্প্রতি সংসদীয় সংরতি নারী আসনে মনোনয়ন পান ভালুকা আসনের সাবেক এমপি মোস্তফা মতিনের মেয়ে মনিরা সুলতানা। এবার মনোনয়ন না পেয়ে নাজনীন চরমভাবে হতাশ হয়ে পড়েন। এ হতাশা থেকেই তিনি তার ফেসবুক আইডিতে নিজের ফাঁসি চেয়ে বসেন।

ভাগ