মনিরামপুরে মহিলা সংস্থার চেয়ারম্যানের দাফন সম্পন্ন

0

 

স্টাফ রিপোর্টার,মনিরামপুর(যশোর)॥ হাজারো মুসল্লির অংশগ্রহণে মনিরামপুরের আলিয়া মাদ্রাসা মাঠে জানাজা নামাজ শেষে জাতীয় মহিলা সংস্থার সদ্য সাবেক চেয়ারম্যান রেবেকা সুলতানাকে পৌরশহরের মোহনপুর পোস্ট অফিস পাড়ার পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়। রেবেকা সুলতানা হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে যশোর ২৫০ শয্যা হাসপাতালে করোনারী কেয়ার ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রবিবার রাত সাড়ে আটটার দিকে ইন্তিকাল করেন। তার বয়স হয়েছিল ৫৮ বছর। মৃত্যুকালে স্বামী, দুই ছেলে ও এক মেয়েসহ অসংখ্য গুনগ্রাহী রেখে গেছেন। পারিবারিক সূত্রে জানাযায়, রেবেকা সুলতানা বেশ কিছুদিন যাবত হৃদ, ডায়াবেটিকসহ বিভিন্ন রোগে ভুগছিলেন। শনিবার রাত সাতটার দিকে অবস্থার অবনতি হলে তাকে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালের করোনারী ইউনিটে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত সাড়ে আটটার দিকে তিনি ইন্তিকাল করেন। রেবেকা সুলতানা মনিরামপুর অধুনালুপ্ত ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও উপজেলা পরিষদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান আওয়ামী লীগ নেতা জিএম মজিদের সহধর্মিনী। রেবেকার ছোট ছেলে মাহিদুল ইসলাম অদি ছাত্রলীগের সম্মিলীত বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারন সম্পাদক। একমাত্র মেয়ে হুমাইরা পিয়া ঢাকাতে ব্যাংক এশিয়ার সিনিয়র অফিসার হিসেবে কর্মরত। রেবেকার ভাসুরের স্ত্রী নুরুন্নাহার মনিরামপুর বিআরডিবির চেয়ারম্যান। এদিকে রেবেকার মৃত্যুর খবর পেয়ে বাড়িতে গিয়ে শোক সন্তপ্ত পরিবারকে সান্তনা দিয়ে সমবেদনা প্রকাশ করেন পৌর মেয়র উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অধ্যক্ষ কাজী মাহমুদুল হাসান, সাধারন সম্পাদক প্রভাষক ফারুক হোসেন, উপজেলা চেয়ারম্যান নাজমা খানম, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান আমজাদ হোসেন লাভলু, বিএনপির আহ্বায়ক সাবেক পৌর মেয়র অ্যাডভোকেট শহীদ ইকবাল হোসেন, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মোহাম্মদ মুছা, মফিজুর রহমান, অ্যাডভোকেট মকবুল ইসলাম, আব্দুল হাই, আসাদুজ্জামান মিন্টুসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক,সামাজিক, ব্যবসায়ী, পেশাজীবী, স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

 

 

Lab Scan