মনিরামপুরে অজ্ঞানপার্টির তৎপরতা বৃদ্ধি : জনমনে আতংক, আটক ১

0

স্টাফ রিপোর্টার,মনিরামপুর (যশোর) ॥ মনিরামপুরে অজ্ঞানপার্টির তৎপরতা বেড়েছে। গত বুধবার রাতে পুলিশ এ চক্রের এক সদস্যকে আটক করেছে। আটক আব্দুস সালাম উপজেলার দুর্বাডাঙ্গা ইউনিয়নের দত্তকোনা গ্রামের ভাষান গাজীর ছেলে।
এলাকাবাসী ও পুলিশ জানায়, গত মঙ্গলবার রাতে অজ্ঞানপার্টির সদস্যরা উপজেলার দুর্বাডাঙ্গা ইউনিয়নের দত্তকোনা গ্রামে অবসরপ্রাপ্ত স্কুলশিক্ষক কওসার আলীর বাড়িতে হানা দেয়। এ সময় কওসার আলী ও তার স্ত্রী রেবেকা খাতুনকে চোখেমুখে চেতনানাশক স্প্রে করে রান্নাঘরে আটকিয়ে রাখে। পরবর্তীতে পার্শ্ববর্তী কৃষক হারুন আর রশিদ ও আনসার ভিডিবির অবসরপ্রাপ্ত প্রশিক্ষক কাজী হোসাইনের বাড়িতে ঢুকে অনুরুপভাবে পরিবারের লোকজনের চোখেমুখে চেতনানাশক স্প্রে করে। পরিবারের সকলকে অচেতন করে একে একে তিনটি পরিবার থেকে স্বর্ণালঙ্কার ও টাকা লুট করে নিয়ে যায়।
গত সোমবার রাতে উপজেলার চালুয়াহাটি ইউনিয়নের ত্র্রিপুরাপুর গ্রামের অবসরপ্রাপ্ত মাদ্রাসা শিক্ষক আশরাফ আলীর বাড়িতে হানা দেয় অজ্ঞানপার্টির সদস্যরা। এ সময় তারা আশরাফ আলী ও তার স্ত্রীকে চেতনানাশক স্প্রে করে প্রায় তিন লাখ টাকার মালামাল লুট করে। এছাড়াও সম্প্রতি পৌর শহরে অজ্ঞানপার্টির কবলে পড়ে হুরগাতী গ্রামের প্রবাসী আবদুর রহিমের স্ত্রী তানজিলা খাতুন স্বর্ণালঙ্কারসহ ২ লাখ টাকার মালামাল হারান।
মনিরামপুরে হঠাৎ করে অজ্ঞানপার্টির তৎপরতা বৃদ্ধি পাওয়ায় জনমনে আতংক বিরাজ করছে। বুধবার রাতে পুলিশ উপজেলার দত্তকোনা গ্রামে অভিযান চালিয়ে আব্দুস সালাম নামে এক যুবককে আটক করে। মনিরামপুর থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি)শেখ মনিরুজ্জামান জানান, আটক আব্দুস সালামের বিরুদ্ধে হত্যা, অস্ত্র, ছিনতাই, মাকদদ্রব্যসহ সাতটি মামলা রয়েছে।

 

 

Lab Scan