মণিরামপুরে এক রাতে ১৪ দোকানে চুরি

0

স্টাফ রিপোর্টার,মণিরামপুর(যশোর)॥ যশোরের মণিরামপুর পৌরশহরের গার্মেন্টস পট্টির ১৪ টি দোকানের শার্টার কেটে চুরি হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১৮ মে) সকাল ছয়টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। সংঘবদ্ধ চোরেরা ১৪ দোকান থেকে প্রায় ২০ লাখ টাকা নিয়ে গেছে। বিষয়টি জানাজানি হলে ব্যবসায়ী, প্রশাসনসহ এলাকাবাসীর মধ্যে ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। সিসি ক্যামেরার ফুটেজ দেখে পুলিশ এ চোরচক্রকে শনাক্তের চেষ্টা করছে। তবে পুলিশ ইতোমধ্যে সন্দেহভাজন হিসেবে এক যুবককে আটক করে থানায় নিয়ে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করেছে।
কাপড় ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি মোশাররফ হোসেন জানান, বৃহস্পতিবার সকাল ছয়টার দিকে বৃষ্টির মধ্যে সংঘবদ্ধ চোরেরা থানা ভবনের পাশে অবস্থিত পৌরশহরের গার্মেন্টস পট্টির ১৪ টি দোকানের শার্টার কেটে প্রায় ২০ লাখ টাকা নিয়ে যায়। চুরি হওয়া দোকানগুলো- হলো নিউ শাড়ি প্যালেস, এমআর ক্লথ স্টোর, আলমগীর বস্ত্রালয়, হারুন বস্ত্রালয়, আঁচল বস্ত্রালয়, এক্সপোর্ট ফ্যাশন, মশিয়ার গার্মেন্টস,স্মার্ট ফ্যাশন, লেডিস কর্নার, বিসমিল্লাহ ফ্যাশন, সিয়াম গার্মেন্টস, স্টাইল কর্নার, কৃঞ্চ ফ্যাশন ও আলেয়া গার্মেন্টস।
বিষয়টি জানাজানি হলে এলাকায় ব্যাপক তোলপাড়ের সৃষ্টি হয়। ফলে থানার অফিসার ইনচার্জ শেখ মনিরুজ্জামানসহ পুলিশের উর্ধতন কর্মকর্তারা দোকানগুলো পরিদর্শন শেষে বেশ কয়েকটি সিসি ক্যামেরায় ধারণকৃত ভিডিও ফুটেজ সংগ্রহের পর পরীক্ষা- নীরিক্ষা করে চোরচক্রকে শনাক্তের চেষ্টা করছেন। ভিডিও ফুটেজে দেখা যায়, চোরচক্রের সদস্যরা মুখে গামছা পেচিয়ে দোকানের শার্টার ভেঙ্গে ভেতরে প্রবেশ করে।
ওসি জানান, এ চক্রকে শনাক্তের পর তাদের আটকের জন্য র‌্যাব, ডিবিসহ অন্যান্য সংস্থার সদস্যরা মাঠে নেমেছে। এসআই আতিকুজ্জামান জানান, ইতোমধ্যে সন্দেভাজন হিসেবে দূর্গাপুর এলাকা থেকে এক যুবককে আটকের পর জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। তবে তিনি ওই যুবকের নাম প্রকাশ করেন নি।
থানার অফিসার ইনচার্জ শেখ মনিরুজ্জামান জানান, আশা করা হচ্ছে সংঘবদ্ধ এ চোর চক্রকে দ্রুত আইনের আওতায় আনা সম্ভব হবে।

Lab Scan