ভোটের মাধ্যমে গদখালী ইউনিয়ন বিএনপির নেতা নির্বাচন

0

 

তরিকুল ইসলাম, ঝিকরগাছা (যশোর) ॥ ঝিকরগাছায় গোপন ব্যালটের মাধ্যমে গদখালী ইউনিয়ন বিএনপির নেতা নির্বাচন সম্পন্ন হয়েছে। উপজেলা বিএনপি কার্যালয়ে রোববার সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৩টা পর্যন্ত উৎসবমুখর পরিবেশে এই নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এতে সভাপতি পদে তবিবর রহমান ও রফিকুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক পদে অহেদুজ্জামান লিটু ও তরিকুল ইসলাম এবং সাংগঠনিক সম্পাদক পদে কাজী আখিজুর রহমান পলাশ ও ওলিয়ার রহমান প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন।
নির্বাচনে ৭টি ওয়ার্ডের ৩৫৭ জন কাউন্সিলের মধ্যে ৩৩৪ জন তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন। নির্বাচনী ফলাফলে সভাপতি পদে তবিবর রহমান ১৮১ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী রফিকুল ইসলাম পেয়েছেন ১১৯ ভোট। সাধারণ সম্পাদক পদে অহেদুজ্জামান লিটু ১৬০ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী তরিকুল ইসলাম পান ১৪৭ ভোট। সাংগঠনিক সম্পাদক পদে কাজী আখিজুর রহমান পলাশ ১৫৮ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ওলিয়ার রহমান পেয়েছেন ১২৬ ভোট।
এদিকে শান্তিপূর্ণ এই নির্বাচন পর্যবেক্ষণ করতে দুপুর ১২টায় দলীয় কার্যালয়ে আসেন যশোর জেলা বিএনপির আহ্বায়ক অধ্যাপক নার্গিস বেগম। তিনি নির্বাচনে অংশগ্রহণকারী সকল প্রার্থী, কাউন্সিলরদের স্বতঃস্ফূর্ত উপস্থিতি ও শান্তিপূর্ণ ভোটের পরিবেশ দেখে সন্তোষ প্রকাশ করেন এবং সংশ্লিষ্ট সকলকে ধন্যবাদ জানান। এ সময় তাঁর সাথে ছিলেন, যশোর জেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক দেলোয়ার হোসেন খোকন, জেলা আহ্বায়ক কমিটির সদস্য অ্যাড. মোহাম্মদ ইসহক ও আলহাজ মিজানুর রহমান খান।
ভোট গণনা শেষে বিকেল পাঁচটায় নির্বাচিতদের নাম ঘোষণা করেন প্রধান নির্বাচন কমিশনারের দায়িত্ব পালনকারী জেলা বিএনপির আহ্বায়ক কমিটির সদস্য মুনীর আহম্মেদ সিদ্দিকী বাচ্চু। এ সময় বক্তব্য রাখেন, নির্বাচন কমিশনারের দায়িত্ব পালনকারী জেলা বিএনপির আহ্বায়ক কমিটির সদস্য কাজী আজম ও হাজী আনিসুর রহমান মুকুল। এ ছাড়া দিনভর নির্বাচন পর্যবেক্ষণ করেন, কেন্দ্রীয় বিএনপির সদস্য ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান সাবিরা নাজমুল মুন্নি, ঝিকরগাছা উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক মোর্তজা এলাহী টিপু, যুগ্ম-আহ্বায়ক খোরশেদ আলম, মোহাম্মদ শহিদুল ইসলাম, সরদার শহিদুল ইসলাম, মুরাদুন্নবী মুরাদ, ইমরান সামাদ নিপুন. আশফাকুজ্জামান খান রনিসহ নেতৃবৃন্দ।
নির্বাচনে স্বচ্ছ ৩টি ব্যালেট বাক্স ও ৫টি বুথ (গোপন কক্ষ) স্থাপন করা হয়। নবনির্বাচিত ও প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের আগামী তিনদিনের মধ্যে ইউনিয়নের ৭১ সদস্য বিশিষ্ট পূর্ণাঙ্গ কমিটি করে জেলা ও উপজেলা বিএনপির নেতৃবৃন্দের কাছে জমা দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বলে জানায় নির্বাচন কমিশন।

 

Lab Scan