বেড়েছে সবজি, তেল, চাল ও মাছের দাম

0

লোকসমাজ ডেস্ক॥ দেশব্যাপী চলা কঠোর লকডাউন শেষ হয়েছে ১৪ জুলাই। আগামী ২১ জুলাই ঈদুল আজহা। এ উপলক্ষে ১৫ থেকে ২২ জুলাই পর্যন্ত লকডাউন শিথিল করা হয়েছে। এরপর আবারও বাড়বে লকডাউনের মেয়াদ। বাজার সংশ্লিষ্টরা বলছেন, লকডাউনের আগে মানুষ চাল, ডাল, পেঁয়াজ, চি‌নি, তেল প্রয়োজ‌নের চে‌য়ে বে‌শি ক‌রেই কি‌নে‌ছেন। ফলে, বাজারে নিত্যপ্রয়োজনীয় প‌ণ্যের দাম বে‌ড়ে‌ছিল। সেই বাড়‌তি দা‌মে এ সপ্তা‌হেও বি‌ক্রি হ‌চ্ছে অনেক পণ্য। তাছাড়া, মাত্র চার দিন পরে কোরবানির ঈদ। সে কারণেও গত সপ্তা‌হের তুলনায় দাম বে‌ড়ে‌ছে সবজি, মুরগি, তেল, চাল ও মাছের। বেড়েছে পেঁয়াজসহ মশলার দামও। অন্য সব পণ্যের দাম স্থি‌তিশীল আছে।
রাজধানীর কারওয়ান বাজার, হা‌তিরপুল এবং নিউমা‌র্কেট ঘু‌রে দেখা গে‌ছে, প্রতি কেজি না‌জিরশাইল চাল ৬৫, মি‌নি‌কেট ৫৫-৬০, পাইজাম ৫০, মোটা চাল ৪৬ এবং আটাশ চাল ৫০ টাকায় বি‌ক্রি হ‌চ্ছে।
চা‌লের দাম সম্প‌র্কে জান‌তে চাইলে রাজশাহী রাইস মি‌লের মা‌লিক ক‌লিম উল্লাহ ব‌লেন, ‘দাম প্রায় আগের মতোই আছে। কে‌জি‌তে ২-১ টাকা বেড়েছে। বাজা‌রে ক্রেতা কম। যেখা‌নে ক্রেতা নেই, সেখা‌নে দাম বাড়‌লে কী আর কম‌লেই বা কী।’
বাজারে, রাস্তার মোড়ে, অলিতে-গলিতে ভ্যান গাড়িতে করে বিক্রি হচ্ছে বিভিন্ন ফল। বিশেষ করে, আম ও কাঁঠাল। আমের দাম বেশ সহনীয়। বিভিন্ন আমের দাম ৫০ থেকে ৭০ টাকা পর্যন্ত। কাঁঠাল আকারভেদে ১০০ থেকে ২৫০ টাকা। সাগর কলার ডজন ৯০-১২০ টাকা, চম্পা কলা ৬০, বাংলা কলা ৭০-৭৫ টাকা। বেল আকারভেদে ৮০-১৪০ টাকা, পেয়ারার কেজি ৮০ টাকা, আনারস প্রতিটি ২৫-৩০ টাকা, পাকা পেঁপের কে‌জি ১২০ টাকা এবং সবুজ আপেল ১৬০-১৮০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।
গত সপ্তাহের চেয়ে এ সপ্তাহে সব ধরনের মুরগির দাম বেড়েছে কেজিতে ১০ থেকে ২০ টাকা। হাতিরপুলে ব্রয়লার মুরগি ১৫০ টাকা, সোনালি জাতের মুরগি ২৬০ টাকা, দেশি মুরগি ৪০০ টাকা, লেয়ার মুরগি ২৭০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। লকডাউনে চাহিদামতো মুরগি পাচ্ছেন না ব্যবসায়ীরা। সব ধরনের মুরগির সরবরাহ চাহিদার তুলনায় কম। অনেকে খামার বন্ধ করে দিয়েছেন। এ কারণেই মুরগির দাম বেড়েছে বলে জানিয়েছেন প্রোটিন চিকেন হাউজের আবুল কাশেম।
মাছের দামও গত সপ্তাহের তুলনায় বেড়েছে। হাতিরপুল মাছ বাজারে দেখা গেছে, প্রতি কেজি ছোট রুই ২০০ টাকা ও বড় রুই ৩০০ টাকায় বি‌ক্রি হ‌চ্ছে। বড় কাতল ৩০০ টাকা, গলদা চিংড়ি ৮০০ টাকা, বাগদা ৬০০, রসনাই ও হরিনা চিংড়ি ৬০০ টাকা। প্রতি কেজি তেলাপিয়া ১২০ টাকা, বাতাসি মাছ ৩০০ টাকা, বাইম মাছ ৫০০ টাকা, শিং (দেশি) ৫০০ টাকা, বোয়াল ৫০০ টাকা, টেংরা ৫০০-৬০০ টাকা, শোল মাছ ৪৫০, পাবদা ৪০০, কৈ ১৮০-২০০, মলা মাছ ৪০০ টাকা করে বিক্রি করছে। এছাড়া, মাঝারি আকারের রূপচাঁদা মাছ বিক্রি হচ্ছে প্রতি কেজি ৭০০ থেকে ৭৫০ টাকায়।
নিউমার্কেটের আল মদিনা এন্টারপ্রাইজের স্বত্বাধিকারী আতিক উল্লাহ বলেন, ‘সয়াবিন তেলের দাম গত সপ্তাহের চেয়ে বেড়েছে। আজকের বাজারে কোম্পানিভেদে প্রতি লিটার ১৪৫-১৫০ টাকা, ২ লিটার ২৮০-২৯০ এবং ৫ লিটার সয়াবিন তেল ৬৮০-৬৯০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।’
রাজধানীর হাতিরপুল, নিউমার্কেট ঘুরে দেখা গেছে, প্রতি কেজি আলু ২৮-৩০ টাকা, গোল বেগুন ৮০ টাকা, পটল ৪০ টাকা, কাঁচা পেঁপে ৪০ টাকা, ঢেঁড়স ৪০ টাকা, গাজর ৪০ টাকা, কাঁচা মরিচ প্রতি কেজি ৬০ টাকা, লাউ প্রতিটা ৬০ টাকা, টমেটো কেজি ৮০ টাকা, উচ্চে ৭০ টাকা, শসা ৬০-৭০ টাকা, ঝিঙা ৫০ টাকা, বরবটি ৬০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে।পেঁয়াজের দাম কেজিতে ৫-১০ টাকা বেড়েছে। দেশি পেঁয়াজ ৫০-৫৫ ও ভারতীয় পেঁয়াজ ৪৫ টাকা দরে বেচাকেনা হচ্ছে। চায়না আদা ২০০ টাকা ও দেশি আদা ২৮০ টাকা, রসুন ১২০ টাকা, মশুর ডাল ১০০ টাকায় বি‌ক্রি হচ্ছে।
মাংসের দাম গত সপ্তা‌হের ম‌তো আছে। আজকের বাজারে গরুর মাংসের কেজি ৬০০ টাকায়। খাসির মাংস বিক্রি হচ্ছে ৯০০ টাকা কেজি দরে।

Lab Scan