বেনাপোল চেকপোস্টে ইলেকট্রনিক গেটের উদ্বোধন

0

 

বেনাপোল সংবাদদাতা॥ বেনাপোল আন্তর্জাতিক চেকপোস্টে  ইলেকট্রনিক গেটের উদ্বোধন করেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান। শনিবার বিকেল চারটায় বেনাপোল ইমিগ্রেশনে ই-গেটের উদ্বোধন করার পরপরই যাত্রীরা মাত্র ৪০ সেকেন্ডে ইমিগ্রেশনের কাজ সম্পন্ন করে দ্রুত ভারতে যেতে পেরেছেন।
উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী ২০০৮ সালে বলেছিলেন, তিনি ডিজিটাল বাংলাদেশ করবেন। ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণে তিনি মেশিন রিডেবল পাসপোর্ট (এমআরপি) পাসপোর্টের প্রবর্তন করেছিলেন। আজকে সবার হাতে হাতে এমআরপি পাসপোর্ট। হাতের লেখা পাসপোর্ট বাদ দিয়ে আমরা এমআরপি পাসপোর্টে প্রবেশ করেছিলাম।
তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রীর দিকনির্দেশনায় আজ আমরা ই-পাসপোর্টে চলে এসেছি। বিশ্বের স্বনামধন্য জার্মানির একটি কোম্পানি আমাদের ই-পাসপোর্টে সহযোগিতা করেছে। শুধু ই-পাসপোর্টই নয় ই-গেট করার জন্য তারা সহযোগিতা করছেন। অন্য স্থানের মতো আজ বেনাপোলে চেকপোস্টে ই-গেটের উদ্বোধন করা হলো।
মন্ত্রী আরও বলেন, আমরা পরবর্তীকালে ই-ভিসায়ও চলে যাচ্ছি। ই-ভিসা ও অ্যাডভান্স প্যাসেঞ্জার ইনফরমেশন পেলে আরও দ্রুত আমাদের বিমানবন্দর ও স্থলবন্দরের ইমিগ্রেশনে সার্ভিস পাওয়া যাবে। এটাই আমাদের প্রধানমন্ত্রীর ডিজিটাল বাংলাদেশের সুফল। এখন আমরা তারই ঘোষণায় স্মার্ট বাংলাদেশে যাচ্ছি।
উদ্বোধনের পর যাত্রীরা ই-গেটে পাসপোর্ট শো করলে অটোমেটিকভাবে গেট খুলে যেতে দেখা যায়। প্রথম পর্যায়ে ছয়টি গেট করা হয়েছে। ভারতে প্রবেশের জন্য তিনটি ও ভারত থেকে আসা পাসপোর্ট যাত্রীদের জন্য তিনটি। পর্যায়ক্রমে এই গেটর সংখ্যা বাড়ানো হবে বলে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা জানিয়েছেন।
বেনাপোল ইমিগ্রেশনের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আহসান হাবীব জানান, স্থলবন্দর হিসেবে দেশের মধ্যে এই প্রথম বেনাপোল চেকপোস্টের ইমিগ্রেশনে উদ্বোধন করা হয়েছে ইলেকট্রনিক গেট। ফলে ভারতে যাতায়াতকারী পাসপোর্ট যাত্রীদের ভোগান্তি অনেকটা কমে আসবে। যাত্রীরা সহজেই গেটে পাসপোর্ট শো করে মাত্র ৪০ সেকেন্ড ভারতে ঝামেলামুক্ত ভাবে যেতে পারবেন। আগে যাত্রীদের ইমিগ্রেশন পার হতে কমপক্ষে ১০ থেকে ১৫ মিনিট সময় লাগত। পাসপোর্ট ছাড়া এখন থেকে কেউ ওই গেট পার হতে পারবেন না।
স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী চেকপোস্ট ইমিগ্রেশনের ই-গেট উদ্বোধনের পর বিকেল সাড়ে ৪টায় বেনাপোল ফুটবল মাঠে এক সুধী সমাবেশে বক্তব্য রাখবেন। পরে বিকেল সাড়ে ৫টায় চেকপোস্টের নো ম্যান্স ল্যান্ডে ভারত-বাংলাদেশের বিজিবি-বিএসএফের মধ্যে অনুষ্ঠিত মনোজ্ঞ রিট্রেট সিরিমনি অনুষ্ঠানে যোগ দেন।
যশোর আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসের উপপরিচালক মেহেদী হাসান কুতুব জানান, বেনাপোল ইমিগ্রেশনে ইলেকট্রনিক গেট উদ্বোধনের ফলে পাসপোর্ট যাত্রীরা দ্রুত সময়ের মধ্যে ভারতে যাতায়াত করতে পারবেন। তিনি আরো বলেন, বিমান বন্দরের আদলে স্থলপথে এই প্রথম বেনাপোল চেকপোস্টে ই-গেট স্থাপন করা হলো। বন্দরে ভারতে যাওয়া-আসার জন্য কোনো ঝামেলা থাকবে না। দালালদের দৌরাত্ম্যও থাকবে না।
উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সুরক্ষা সেবা বিভাগের সচিব আব্দুূলল্লাহ আল মাসুদ চৌধুরী।