বৃষ্টির মধ্যে তরুণী অফিসারের কাছ থেকে ছাতা কেড়ে সমালোচিত পাক প্রধানমন্ত্রী

0

লোকসমাজ ডেস্ক ।। পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী শেহবাজ শরিফ ফের নতুন করে বিতর্কের জন্ম দিয়েছেন। প্যারিসে দুই দিনের নিউ গ্লোবাল ফাইন্যান্সিং প্যাক্ট সামিটে যোগ দিতে ফ্রান্সে থাকা পাক নেতার একটি ভিডিও টুইটারে ভাইরাল হয়েছে। পাক-প্রধানমন্ত্রীর দফতরের টুইটার হ্যান্ডল থেকে একটি ভিডিও পোস্ট করা হয়েছে।
ভিডিও-তে দেখা যাচ্ছে, সম্মেলনে যোগ দিতে যাওয়ার সময়ে বাঁধভাঙা বৃষ্টি হচ্ছে। গাড়ি থেকে নামতেই শরীফকে বৃষ্টির মধ্যে অভ্যর্থনা জানাতে ছাতা হাতে এগিয়ে যান এক তরুণী অফিসার। এর কিছুক্ষণ পরেই তাঁর হাত থেকে ছাতাটি কেড়ে নিয়ে সম্মেলন স্থলের দিকে সটান হাঁটা লাগান পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী! আর ওই তরুণীকে দেখা যায় বৃষ্টিতে ভিজতে ভিজতে এগিয়ে যেতে। শেহবাজ শরিফ শীর্ষ সম্মেলনে যোগদানের জন্য প্যালাইস ব্রগনিয়ার্টে পৌঁছানোর পরে, প্যারিসে বৃষ্টি শুরু হয়। বৃষ্টির মধ্যে কেন ওই তরুণীকে একা ফেলে রেখে গেলেন শরিফ? আন্তর্জাতিক সম্মেলনে গিয়ে পাক-প্রধানমন্ত্রী এমন আচরণে নিন্দায় সরব নেটিজেনদের একাংশ। অনেকেই শরীফের আচরণকে “অশালীন” বলে আখ্যা দিয়েছেন। তবে অনেকে বলছেন ওই তরুণী বৃষ্টিতে না ভিজে অন্য কারুর ছাতা ব্যবহার করতে পারতেন।
অন্য একজন লিখেছেন: “ভাল উদ্দেশ্য এবং ভাল কাজেরও খারাপ পরিণতি হতে পারে। দুঃখজনক, কিন্তু জীবন এমনই।” নেটিজেনদের কেউ কেউ মনে করিয়ে দিয়েছেন শরিফ অফিসারের কাছ থেকে ছাতাটি নিয়েছেন তার একটি কারণ থাকতে পারে।
কারণ ইরানে শেষবার যখন অন্য কেউ তার জন্য ছাতা ধরেছিল – পাকিস্তানি টুইটারে মারাত্মক বিপর্যয় হয়েছিল। তবে পাকিস্তানিরা বলছেন -”আমরা আমাদের প্রধানমন্ত্রীর জন্য গর্বিত। এই অঙ্গভঙ্গি একজন নারীর প্রতি তার সম্মান প্রদর্শন করে। প্রটোকল মেনে অফিসার সহজেই আরেকটি ছাতা চাইতে পারতেন।” ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁর আমন্ত্রণে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী শেহবাজ শরীফ দুই দিনের সম্মেলনে যোগ দিতে প্যারিস গেছেন।
রেডিও পাকিস্তানের প্রতিবেদন অনুসারে, পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী এর আগে আইএমএফের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ক্রিস্টালিনা জর্জিভার সাথে দেখা করে পাকিস্তানের আর্থিক সমস্যাগুলি তাঁর সামনে তুলে ধরেন ঋণ পাবার প্রচেষ্টায়। দক্ষিণ এশিয়ার দেশটি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রকে স্থবির আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল (আইএমএফ) প্রোগ্রাম পুনরুজ্জীবিত করতে আবেদন করেছে বলে জানা গেছে।

Lab Scan