বিজিবি সদস্যের বিরুদ্ধে মোটরসাইকেল জিম্মি করে ঘুষ দাবির অভিযোগে মামলা

0

 

স্টাফ রিপোর্টার ॥ যশোরে বিজিবির নায়েক রায়হানের বিরুদ্ধে লিটন নামে এক ব্যক্তির মোটরসাইকেল আটকে রেখে ঘুষ দাবি এবং বিভিন্ন মামলার আসামি করার ভয়ভীতি দেখানোর অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় রোববার লিটন ওই বিজিবি সদস্যের বিরুদ্ধে আদালতে মামলা করেছেন। লিটন শার্শা উপজেলার গয়ড়া গ্রামের বাসিন্দা। পেশায় তিনি প্রাইভেটকারচালক। জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ইমরান আহমেদ তার অভিযোগের তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিলের জন্য সিআইডি পুলিশকে আদেশ দিয়েছেন। অভিযুক্ত রায়হান বেনাপোল বিজিবি ক্যাম্পে কর্মরত। মামলায় লিটন উল্লেখ করেছেন, গত ২৯ সেপ্টেম্বর রাত ৮টার দিকে শিকড়ী মালিপোতা গ্রামের গ্যারেজমিস্ত্রি মোস্তাকিমকে বাড়িতে পৌঁছে দেয়ার জন্য লিটন তাকে তার অ্যাপাচি মোটরসাইকেলে করে নিয়ে যাচ্ছিলেন। পথে শিকড়ী বটতলা নামক স্থানে পৌঁছালে বিজিবি নায়েক রায়হান তাদের তল্লাশি চেকপোস্টে মোটরসাইকেলটি গতিরোধ করেন। এ সময় তিনি লিটনের কাছ থেকে মোটরসাইকেল এবং দুটি মোবাইল ফোনসেট কেড়ে নিয়ে তাকেসহ গ্যারেজমিস্ত্রিকে আটকে রাখেন। পরে গ্যারেজমিস্ত্রিকে ছেড়ে দেয়া হলেও লিটনকে আটকে রাখা হয়। কিছুক্ষণ পর লিটন যেতে চাইলে বিজিবি সদস্য রায়হান মোটরসাইকেল রেখে দিয়ে তাকে ছেড়ে দেন। বলা হয়, গাড়ির কাগজপত্র পরীক্ষা করার পর মোটরসাইকেল ফেরত দেয়া হবে। এরপর ৩ অক্টোবর বিজিবি সদস্য রায়হানের কাছে গেলে লিটনকে মোবাইল ফোনসেট দুটি ফেরত দিলেও মোটরসাইকেলটি দেয়া হয়নি। ১৫দিন পর লিটনকে ওই বিজিবি সদস্যের সাথে দেখা করতে বলা হয়। কথা অনুযায়ী ১৫দিন পর গেলে লিটনের কাছে ৩০ হাজার টাকা ঘুষ দাবি করেন বিজিবি সদস্য রায়হান। অস্বীকার করায় লিটনকে সোনার বার, অস্ত্র অথবা মাদক দিয়ে মামলা দেয়ার ভয়ভীতি দেখান রায়হান। এর এক সপ্তাহ পর ফের লিটন তার কাছে গেলে মোটরসাইকেলটি কাস্টমসে জমা দেয়া হয়েছে বলে বিজিবি সদস্য রায়হান তাকে জানান ।

Lab Scan