বিএসএফের গুলিতে দুই স্থানে ৩ বাংলাদেশি হতাহত

দেশের সীমান্তবর্তী জেলা চাঁপাইনবাবগঞ্জে ভারতীয় সীমান্তরী বাহিনী বিএসএফের গুলিতে দুই বাংলাদেশি নিহত হয়েছেন। অপরদিকে যশোরের বেনাপোল সীমান্তে বিএসএফের গুলিতে গুরুতর জখম হয়েছেন অপর এক বাংলাদেশি।
চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলার ওয়াহেদপুর সীমান্তের ওপারে বিএসএফের গুলিতে নিহত বাংলাদেশীরা হলেন-দোভাগী গ্রামের আসাদুর রহমানের ছেলে রয়েল রহমান ও মনোহরপুর হঠাৎপাড়ার সাইফুল ইসলামের ছেলে সাদ্দাদ হোসেন পটল। স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা এ তথ্য নিশ্চিত করলেও বিজিবি জানিয়েছে, তাদের কাছে হত্যার নিশ্চিত কোনো তথ্য নেই। দুর্লোভপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আব্দুর রাজিব রাজু ও সাবেক চেয়ারম্যান নাজমুল কবীর মুক্তাসহ স্থানীয় আরও কয়েকজন জানান, বুধবার দিবাগত রাতে রয়েল ও পটলসহ কয়েকজন গরু আনতে ওয়াহেদপুর সীমান্ত দিয়ে ভারতে প্রবেশের চেষ্টা করেন। এসময় সীমান্ত পিলার এস ১৬/৫ এর কাছ থেকে প্রায় আড়াই কিলোমিটার ভারতীয় অংশে বিএসএফ সদস্যরা গুলি করলে ঘটনাস্থলেই মারা যান তারা। অন্য সহযোগীরা তাদের মরদেহ গ্রামে নিয়ে এসে গোপনে দাফন করেছেন। এ বিষয়ে চাঁপাইনবাবগঞ্জের ৫৩ বিজিবির উপ-অধিনায়ক মেজর এখলাসুর রহমান জানান, ‘দুই বাংলাদেশী হত্যার ঘটনা স্থানীয়দের কাছ থেকে শোনা গেছে, তবে আমাদের কাছে নিশ্চিত কোন তথ্য নেই। যারা মারা গেছেন বলে শোনা যাচ্ছে তাদের পরিবারের কেউ বিজিবির কাছে স্বীকারও করেনি।’
এদিকে শার্শা (যশোর) সংবাদদাতা জানান, বেনাপোলের পুটখালি সীমান্তে ভারতীয় বিএসএফের গুলিতে ইসরাফিল নামে এক বাংলাদেশি গুরুতর জখম হয়েছেন। গতকাল বৃহস্পতিবার ভোররাতে পুটখালীর বিপরীতে ভারতের আংরাইল ক্যাম্পের বিএসএফ সদস্যরা তাকে গুলি করেন। আহত ইসরাফিল ইসলাম বেনাপোল পোর্ট থানাধীন ছোটআঁচড়া গ্রামের নুর ইসলামের ছেলে। পুটখালী ক্যাম্পের সুবেদার মশিউর রহমান বলেন, গভীররাতে গরু আনতে ভারতে প্রবেশ করেন ইসরাফিলসহ আরও কয়েকজন রাখাল। তারা ভোররাতে গরু নিয়ে আসার সময় আংরাইল ক্যাম্পের বিএসএফ সদস্যরা গুলি ছোড়েন। এতে গুলিবিদ্ধ হন ইসরাফিল। তাকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় পুটখালী সীমান্তের ১৮ নম্বর পিলারের পাশ থেকে উদ্ধার করে বেনাপোল পোর্ট থানায় নেয়া হয়। এরপর পুলিশ সদস্যরা তাকে প্রথমে শার্শা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। অবস্থার অবনতি হলে তাকে নেয়া হয় যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে।
খুলনা ২১ বিজিবি ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল ইমরান উল্লাহ সরকার বলেন, ‘ইসরাফিল নামে এক যুবক ভারতে গরু চুরি করতে গিয়ে বিএসএফের গুলিতে আহত হয়েছে। তাকে বেনাপোল পোর্ট থানা পুলিশের মাধ্যমে উন্নত চিকিৎসার জন্য যশোর জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।’ বেনাপোল পোর্ট থানা পুলিশের এএসআই শাহিন ফরহাদ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, গুলিবিদ্ধ ইসরাফিল পুলিশ প্রহরায় যশোর জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। আহত ইসরাফিলের মা জাহানারা বেগম জানান, তার ছেলে ট্রাক চালান। কয়েকদিন ধরে কাজ না থাকায় ভারতে গরু আনতে গিয়েছিলেন। ফেরার সময় বিএসএফ সদস্যরা তাকে গুলি করেছেন।

ভাগ