বাগেরহাট কারাগারে থাকা যুবদল নেতার মৃত্যু

0

বাগেরহাট সংবাদদাতা॥ বাগেরহাটে নাশকতার মামলায় কারাগারে থাকা কামাল হোসেন (৪৩) নামের এক যুবদল নেতার মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার রাতে তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন। রাত সোয়া ১১টার দিকে বাগেরহাট জেলা হাসপাতালে নেওয়ার পর চিকিৎসকেরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
গ্রেফতারের পর ৫৩ দিন ধরে বাগেরহাট জেলা কারাগারে ছিলেন তিনি। ময়নাতদন্ত শেষে গতকাল বুধবার দুপুরে কামাল হোসেনের মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়। কামাল হোসেন খুলনা মহানগর যুবদলের নির্বাহী কমিটির সদস্য। তিনি বাগেরহাট জেলার মোরেলগঞ্জ উপজেলার সানকিভাঙ্গা গ্রামের মোকলেছ হোসেনের ছেলে।
বাগেরহাট জেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি এম এ সালাম বলেন, যুবদল নেতা কামাল হোসেন খুলনায় থাকতেন। তিনি সেখানেই রাজনীতি করতেন। গত নভেম্বরে গ্রামের বাড়িতে বেড়াতে গেলে পুলিশ তাকে ধরে নিয়ে গিয়ে নাশকতার মামলায় গ্রেফতার দেখায়। সেই থেকে তিনি কারাগারে ছিলেন।
২৫০ শয্যা বাগেরহাট জেলা হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসা কর্মকর্তা ফয়সাল ইসলাম বলেন, রাত সোয়া ১১টার দিকে ওই হাজতিকে (কামাল হোসেন) মৃত অবস্থায় হাসপাতালে আনা হয়। তার শরীরে কোনো চিহ্ন পাওয়া যায়নি। আর যারা (কারারক্ষী) তাকে নিয়ে এসেছিলেন, তারাও সেভাবে রোগীর হিস্ট্রি (উপসর্গ) বলতে পারেননি। মৃত্যুর কারণ জানতে মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে।
বাগেরহাট জেলা কারাগারের জেল সুপার (ভারপ্রাপ্ত) শংকর কুমার মজুমদার বলেন, উনি (কামাল হোসেন) হঠাৎ অজ্ঞান হয়ে গিয়েছিলেন। আগে তিনি এলার্জি, গ্যাস্ট্রিকের সমস্যার জন্য হাসপাতালে গেছেন, চিকিৎসা নিয়েছেন। এ ছাড়া তার মারাত্মক কোনো সমস্যা ছিল না। মঙ্গলবার সারা দিনই তিনি সুস্থ-স্বাভাবিক ছিলেন। রাত ১০টা থেকে সাড়ে ১০টার দিকে তিনি ঘুমিয়ে পড়েছিলেন। এর মধ্যে তিনি অজ্ঞান হয়ে যান। পরে তাকে হাসপাতালে নেওয়া হয়।

Lab Scan