বাগেরহাটে রোববার থেকে ৮২ হাজার পরিবার পাচ্ছে টিসিবি পন্য

0

বাগেরহাট সংবাদদাতা॥ আসন্ন পবিত্র রমজান উপলক্ষে এই প্রথম বাগেরহাটের ৮১ হাজার ৯১৩টি পরিবার স্বল্প মূল্যে টিসিবির পন্য পাবে। উপকারভোগীদের হাতে পন্য পৌছে দিতে তালিকা প্রস্তুত, পন্য প্যাকেজিংসহ সব ধরণের প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে জেলা প্রশাসন। রবিবার (২০ মার্চ) থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে বাগেরহাটে তালিকাভুক্ত উপকারভোগীদের মাঝে এই পন্য সরবরাহ শুরু হবে। শনিবার (১৯ মার্চ) বিকেলে টিসিবি পন্য বিতরণ কার্যক্রম বিষয়ক প্রেস ব্রিফিংয়ে বাগেরহাটের জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আজিজুর রহমান এসব তথ্য জানান।
এসময়, বাগেরহাটের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক খোন্দকার মোহাম্মাদ রিজাউল করিম, সহকারি কমিশনার নূরে আলম সিদ্দিকি, বাগেরহাট প্রেসক্লাবের সভাপতি নিহার রঞ্জন সাহাসহ গনমাধ্যমকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। জেলা প্রশাসন সূত্রে জানাযায়, নিত্য প্রয়োজনীয় পন্যের মূল্য সহনীয় পর্যায়ে রাখতে সারা দেশে টিসিবি পন্য বিক্রয় কার্যক্রম শুরু হয়েছে। বাগেরহাটেও ২১ মার্চ থেকে আনুষ্ঠানিক এই পন্য বিক্রি শুরু হবে। তালিকাভুক্ত কার্ডধারী ৮১ হাজার ৯১৩ জন উপকারভোগী এই পন্য পাবেন। উপকারভোগী প্রতিটি পরিবার ২ কেজি করে চিনি, মশুর ডাল এবং সয়াবিন তেল পাবেন। ২য় ধাপে রমজানের মধ্যে আরও এক পন্য প্রদান করা হবে। প্রতিটি প্যাকেজের দাম হবে ৪৬০ টাকা। ২য় ধাপে একটি পরিবার ২ কেজি করে চিনি, মশুর ডাল, সয়াবিন তেল এবং ২ কেজি ছোলা প্রদান করা হবে।
কার্ডধারী ৮১ হাজার ৯১৩ জন উপকারভোগীর মধ্যে বাগেরহাট সদর উপজেলায় ১৫ হাজার ৯০৮ জন, মোংলায় ১০ হাজার ২৫, মোরেলগঞ্জে ১৫ হাজার ৯২, চিতলমারী ৬ হাজার ৭০৭, ফকিরহাটে ৮ হাজার্ ৫৯৪, কচুয়ায় ৫ হাজার ৬৭৬, রামপালে ৬ হাজার ৩৭৩, শরণখোলায় ৫ হাজার ২৩৫ জন উপকারভোগী রয়েছে। জেলার ৯টি উপজেলায় ৪৩জন ডিলার এই পন্য বিতরণ করবেন। বাগেরহাটের জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আজিজুর রহমান বলেন, টিসিবি থেকে পন্য এনে জেলা প্রশাসনের মাধ্যমে প্যাকেট করে টিসিবির ডিলারদের কাছে দেওয়া হবে। ডিলাররা নির্দিষ্ট স্থানে উপকারভোগীদের হাতে পন্য পৌছে দিবেন। টিসিবির পন্য প্রদানের ক্ষেত্রে কোন প্রকার অনিয়ম হলে তার বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে বলেও জানান জেলা প্রশাসক।

Lab Scan