বাগেরহাটে  টাকা ও সোনা চুরির সময় তিন নারী আটক

0

বাগেরহাট সংবাদদাতা॥ বাগেরহাটের শরণখোলায় স্বর্ণের আংটি ও টাকা চুরির অপরাধে তিন নারীকে আটক করেছে পুলিশ। রবিবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে শরণখোলা উপজেলা সদরের পাঁচরাস্তা এলাকায় নাছিমা বেগম নামের এক নারীর ব্যাগ খুলে আংটি ও টাকা নেওয়ার সময় এদের ধরে ফেলে স্থানীয়রা। পরে ধৃত নারীদের শরণখোলা থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করে স্থানীয়রা। আটককৃতরা হলেন, পারভীন বেগম (২০), শারমিন বেগম (২২) ও মৌসুমী বেগম (২৪)। এদের কাছ থেকে দুটি স্বর্ণের আংটি ও ২১০০ টাকা উদ্ধার করা হয়েছে। এরা সবাই বাগেরহাটের খানজাহান আলী (রহ.) মাজার এলাকায় অস্থায়ীভাবে বসবাস করে। পশ্চিম খাদা গ্রামের নাছিমা বেগম বলেন, রায়েন্দা বাজারের স্বর্ণকারের দোকান থেকে দুটি স্বর্ণের আংটি মেরামত করে বাড়ি ফিরছিলাম। পথিমধ্যে পাঁচরাস্তা মোড়ে নাদিয়া ফার্মেসীতে ওষুধ কিনতে প্রবেশ করি। এসময়, এক নারী আমার ব্যাগ খুলে দুটি আংটি এবং ২হাজার ১শ টাকা বের করে নিয়ে পালানোর চেষ্টা করেন। এসময় পাশের লোকজন দেখে তাকে ও তার দুই সহযোগীকে ধরে ফেলেন। আমি কোন ভাবেই বুঝতে পারিনি তারা ছিনতাইকারি। শুধু নাছিমা নয় রহিমা বেগম নামের এক বৃদ্ধ নারীর ব্যাগ থেকে ৮০ হাজার টাকা নিয়েছে আটক নারীরা। রহিমা বেগম বলেন, দুপুরে ইসলাম ব্যাকের শরণখোলা শাখা থেকে ছেলের পাঠানো ৮০ হাজার টাকা তুলে হাতে থাকা ব্যাগে রাখি। ব্যাংক থেকে কিছুদূর যাওয়ার পরে আর আমার টাকা দেখি না। পরবর্তীতে শুনি তিনজন নারী টাকা চোর আটক হয়েছে। ঘটনাস্থলে পৌছে দেখি আটক নারীদের সাথে আমার ব্যাংকের মধ্যে দেখা হয়েছিল। তারা আমার টাকা নেওয়ার কথা স্বীকার করেছেন। কিন্তু এখনও টাকা ফেরত পাইনি। টাকা ফেরত পেতে পুলিশের সহযোগিতা কামনা করেন এই নারী। শরণখোলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ সাইদুর রহমান বলেন, সুকৌশলে এক নারীর ব্যাগ থেকে আংটি ও টাকা নেওয়ার চেষ্টা করেছে, এমন অভিযোগে স্থানীয়রা তিন নারীকে আটক করে পুলিশের কাছে সোপর্দ করেছে। আটক ওই নারীদের জিজ্ঞাসাবাদ করছি। জিজ্ঞাসাবাদে তারা একেক সময় এক এক জায়গার ঠিকানা দিচ্ছে। আমরা তাদের সঠিক তথ্য যাছাই করছি।

Lab Scan