বহুলালোচিত প্রতারণা মামলায় প্রদীপ ঘোষকে অভিযুক্ত করে আদালতে চার্জশিট দিয়েছে ডিবি পুলিশ

0

স্টাফ রিপোর্টার॥ বহুলালোচিত ২০ লাখ ৩০ হাজার টাকার প্রতারণা মামলায় প্রদীপ কুমার ঘোষ ওরফে সঞ্জিত ওরফে সৌম্য দ্বীপ ঘোষ ওরফে সুশান্ত ঘোষকে অভিযুক্ত করে চার্জশিট দিয়েছে যশোরের ডিবি পুলিশ। মামলার তদন্ত শেষে আদালতে এ চার্জশিট জমা দিয়েছেন ডিবি পুলিশের এসআই শামীম হোসেন। অভিযুক্ত প্রদীপ কুমার সাতক্ষীরার তালার ঘোষ নগর গ্রামের মৃত সুবোধ কুমার ঘোষের ছেলে।
মামলার অভিযোগে জানা গেছে, যশোর শহরের বেজপাড়ার পিয়ারী মোহন রোডের মৃণাল কান্তি বকসীর স্ত্রী রীতা রাণী দাসের সাথে ফেসবুকে পরিচয় আসামি প্রদীপ ঘোষের। কিছুদিন কথাবার্তার পর আসামি প্রদীপ ম্যাসেঞ্জারে টাকার বিশেষ প্রয়োজনে ৮ শতক জমি বিক্রি করবে বলে রীতা রাণীকে জানান। রীতা রাণী এ জমি ক্রয় করবেন বলে সম্মতি জানালে আসামিরা একদিন কয়েকজনকে সাথে নিয়ে তার বাড়িতে আসেন। জমির দাম নির্ধারিত হওয়ার পর রীতা রাণী তাকে নগদ ও চেকে ১৯ লাথ ৮০ হাজার টাকা পরিশোধ করেন। এরপর আসামি প্রদীপ কুমার জমি রেজিষ্ট্রর খরচের কথা বলে বিকাশের মাধ্যমে আরও ৫০ হাজার টাকা গ্রহণ করেন। পরবর্তীতে প্রদীপ জমি রেজিষ্টি না করে ঘোরতে থাকেন। স্থানীয়দের মাধ্যমে প্রদীপকে চাপ প্রয়োগ করলে স্বামী-সন্তানসহ তাকে খুন জখমের হুমকি দেয়। বিষয়টি মীমাংসায় ব্যর্থ হয়ে রীতা রাণী দাস ২০২১ সালের ৩ জুলাই কোতয়ালি থানা প্রতারণার অভিযোগে মামলা করেন। মামলাটি তদন্তের দায়িত্ব পান ডিবি পুলিশের এসআই শামীম হোসেন। মামলার তদন্তকালে আসামি প্রদীপ কুমারকে আটক ও জমি রেজিষ্টির যাবতীয় কাগজপত্র উদ্ধার করা হয়। পরবর্তিতে আসামির দেয়া তথ্য ও সাক্ষীদের বক্তব্যে ঘটনার সাথে জড়িত থাকায় আসামি প্রদীপ কুমারকে অভিযুক্ত করে আদালতে এ চার্জশিট জমা দিয়েছেন তদন্তকারী কর্মকর্তা।

Lab Scan