ফের বেনাপোল দিয়ে পচনশীল পণ্য আমদানি শুরু

স্টাফ রিপোর্টার ॥ ফের বেনাপোল স্থল বন্দর দিয়ে ভারত থেকে পচনশীল খাদ্যদ্রব্য ও কাঁচামাল আমদানি শুরু করেছেন ব্যবসায়ীরা। বৃহস্পতিবার (১২ ডিসেম্বর) বিকাল থেকে পচনশীল পণ্য ও কাঁচামাল আমদানি শুরু হয়। ঘোষণা ছাড়া অতিরিক্ত পণ্য আমদানির অভিযোগ এনে গত ৩০ নভেম্বর বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের বিজিবি সদস্যরা যশোর বেনাপোল সড়কের নতুন হাট এলাকায় আমদানিকারকদের ৯ ট্রাক পানপাতা আটক করে। এর জের ধরে বেনাপোল বন্দরে খাদ্যদ্রব্য জাতীয় কাঁচামাল আমদানি বন্ধ করে দেন ব্যবসায়ীরা। তবে দুই সপ্তাহ পর আবার নিজ উদ্যোগেই কাঁচামাল আমদানি শুরু করলেন তারা।
একজন আমদানিকারক জানান, বেনাপোল দিয়ে যোগাযোগ ব্যবস্থা সহজ হওয়ায় এ পথে আমদানিকারকদের আগ্রহ বেশি। ফলে ব্যবসায়ীরা যেমন লাভবান হয়, তেমনি দেশের রাজস্ব আয়ও বাড়ে। বন্দর শ্রমিকরা জানান, কাঁচামালের আমদানি বন্ধ থাকায় তারা খুব কষ্টের মধ্যে ছিলেন। আমদানি শুরু হওয়ায় তাদের কষ্ট কমেছে। বেনাপোল কাস্টমস হাউসের সহকারী রাজস্ব কর্মকর্তা আব্দুর রহমান জানান, দুই সপ্তাহ বন্ধ থাকার পর বৃহস্পতিবার (১২ ডিসেম্বর) বিকাল থেকে পুনরায় কাঁচামাল আমদানি শুরু হয়েছে। বর্তমানে বন্দরে ২৪ ঘণ্টা বাণিজ্যিক কার্যক্রম চলমান রয়েছে। ব্যবসায়ীরা যাতে দ্রুত পণ্য খালাস নিতে পারে সে জন্য সব ধরনের চেষ্টা করা হচ্ছে। জানা যায়, যোগাযোগ ব্যবস্থা সহজ হওয়ায় প্রতিদিন বেনাপোল বন্দর দিয়ে ভারত থেকে প্রায় ৪০০ থেকে ৫০০ ট্রাক পণ্য আমদানি হয়ে থাকে। এসব পণ্যের মধ্যে ৩৫ থেকে ৪০ ট্রাক রয়েছে মাছ, পানপাতা, আপেল, লেবু ও টমেটোসহ বিভিন্ন পচনশীল জাতীয় খাদ্যদ্রব্য। প্রতিদিন এসব আমদানি পণ্য থেকে সরকারের প্রায় দেড় কোটি টাকা রাজস্ব আদায় হয়।

ভাগ