প্রত্যন্ত পালাও দ্বীপেও পৌঁছে গেছে করোনা

0

লোকসমাজ ডেস্ক॥ প্রশান্ত মহাসাগরের প্রত্যন্ত পালাও দ্বীপেও পৌঁছে গেছে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস। সোমবার দেশটিতে প্রথমবারের মতো একজনের দেহে করোনার উপস্থিতি শনাক্ত হয়েছে। এই ঘটনাকে ঐতিহাসিক বলে উল্লেখ করেছে কর্তৃপক্ষ। একই সঙ্গে দেশটিতে সংক্রমণের ঝুঁকি নেই বলেও উল্লেখ করা হয়েছে। ক্ষুদ্র এই দ্বীপটিতে মাত্র ২১ হাজার মানুষ বসবাস করে। পর্যটন নির্ভর হলেও করোনা মহামারির শুরু থেকেই নিজেদের সীমান্ত বন্ধ করে দেয় পালাও দ্বীপের প্রশাসন। সে কারণেই দেশটিতে করোনা সংক্রমণ আটকানো সম্ভব হয়েছে। দেশটির অর্থনীতি মূলত পর্যটনের ওপরই নির্ভরশীল।
দেশটির স্বাস্থ্যমন্ত্রী এক বিবৃতিতে জানিয়েছেন, চলতি মাসের শুরুর দিকে দেশটিতে আসা এক ভ্রমণকারীর দেহে করোনাভাইরাসের উপস্থিতি ধরা পড়েছে। ওই ভ্রমণকারী পালাও দ্বীপে ভ্রমণের আগে করোনা পরীক্ষা করিয়েছেন। সে সময় করোনা পরীক্ষার ফলাফল নেগেটিভ আসে। এমনকি পালাও দ্বীপে পৌঁছানোর পর দু’সপ্তাহের কোয়ারেন্টাইনের সময়ও তার করোনা পরীক্ষার ফল নেগেটিভ এসেছিল। স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, আরও পরীক্ষার মাধ্যমে জানা গেছে যে, তিনি করোনায় আক্রান্ত এবং এটা একটি ঐতিহাসিক ঘটনা। তবে এটা সংক্রামক নয় বলে উল্লেখ করেন তিনি। তবে ওই রোগীর বিষয়ে বিস্তারিত কোনো তথ্য জানাতে অস্বীকৃতি জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ। এমনকি তিনি কোন দেশ থেকে পালাও দ্বীপে ভ্রমণ করছে সে বিষয়েও কিছু জানানো হয়নি। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, ওই ব্যক্তিকে ইতোমধ্যেই আইসোলেশনে পাঠানো হয়েছে এবং সাম্প্রতিক সময়ে তার সংস্পর্শে আসা লোকজনকে সতর্কতা অবলম্বণ করতে বলা হয়েছে।

Lab Scan