পুলিশ পরিচয়ে স্বামীকে আটকে রেখে স্ত্রীকে ধর্ষণ, আটক ৪

0

 

খুলনা ব্যুরো॥ খুলনায় পুলিশ পরিচয়ে স্বামীর চোখ বেঁধে স্ত্রীকে পালাক্রমে ধর্ষণের মূল হোতাসহ ৪ জনকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। বুধবার রাতে নগরীর বিভিন্ন থানা এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করা হয়। বৃহস্পতিবার র‌্যাব-৬ খুলনার সদর দপ্তর অনুষ্ঠিত প্রেস ব্রিফিংয়ে এ তথ্য জানানো হয়। গ্রেফতার চারজন হলেন, বেলাল মোড়ল, আজিজুর রহমান মিঠু, জিহাদ মুন্সি ও মো. রাসেল। এদের মধ্যে আজিজুর ও বেলাল ইজিবাইক চালক, জিহাদ মুন্সি বেকারি শ্রমিক ও রাসেল স্থানীয় একটি কলেজের অনার্স চতুর্থ বর্ষের ছাত্র বলে র‌্যাব জানায়।
প্রেস ব্রিফিংয়ে র‌্যাব-৬’র মুখপাত্র লে. কর্নেল মোশতাক আহমদ বলেন, গত ১৩ ডিসেম্বর সন্ধ্যায় ভিকটিম ও তার স্বামী হাটাহাটি করতে আড়ংঘাটা বাইপাস সড়কে যান। সেখানে একটি হোটেলে তারা খাওয়া দাওয়া করেন। পরে বাড়িতে ফিরে আসার সময় চার ব্যক্তি চেকপোস্ট বাসিয়ে তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করে। নিজেদের পুলিশ পরিচয় দিয়ে তাদের বিভিন্ন ধরণের ভয়ভীতি প্রদর্শন করে। এরপর গ্রেফতার আসামিরা ভিকটিম দম্পতিকে বেলাল মোড়লের আড়ংঘাটার বাড়িতে নেয়। সেখানে স্বামীকে একটি ঘরে আটকে রেখে বাড়ির ছাদে নিয়ে স্ত্রীকে তিনজন পালাক্রমে ধর্ষণ করে। একজন ভিডিও চিত্র ধারণ করে। ছেড়ে দেয়ার আগে তাকে বিভিন্ন ধরণের হুমকি প্রদর্শনসহ একটি মোবাইল নম্বর দেয়া হয়।
এ ঘটনায় ওই নারীর স্বামী প্রচন্ড ভীত হয়ে পড়েন। বিষয়টি র‌্যাবের বিভিন্ন সোর্সের মাধ্যমে সংবাদ সংগ্রহ করা হয়। পরবর্তীতে র‌্যাবের সিনিয়র এএসপি পহন চাকমা গোয়েন্দা নজরদারি করে আসামিদের বিভিন্ন স্থান থেকে আটক করতে সক্ষম হন। এ সময় তাদের কাছ থেকে ওই নারীর সংবেদনশীল ভিডিওসহ মোবাইল ফোন জব্দ করা হয়।  এ ঘটনায় বুধবার রাতে ভিকটিমের স্বামী একজনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাতনামা আরও ৩ জনকে আসামি করে থানায় মামলা দায়ের করেন। গ্রেফতারকৃতদের সংশিষ্ট থানায় হস্তান্তররের প্রক্রিয়া চলছে বলে তিনি উল্লেখ করেন।

 

 

 

Lab Scan