পাইকগাছায় পুলিশের উপস্থিতিতে জমি দখলের চেষ্টা, মহিলাসহ জখম ২

পাইকগাছা (খুলনা) সংবাদদাতা ॥ খুলনার পাইকগাছায় আদালতের আদেশ উপো করে পুলিশের উপস্থিতিতে জায়গাজমি দখল নিয়ে প্রতিপরে হামলায় মহিলাসহ দু জন জখম হয়েছেন। তাদের পাইকগাছা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এর মধ্যে একজনের অবস্থা গুরুতর। শনিবার দুপুর ১২ টায় উপজেলার নগর শ্রীরামপুরে গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। জানা গেছে, স্থানীয় কুদ্দুস গাজীদের সাথে ৭ শতক জমি নিয়ে দীর্ঘদিন আমজেদ গাজীদের বিরোধ চলছে। যা নিয়ে থানায় অভিযোগ ও উপজেলা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলা হয়েছে। গত মঙ্গলবার থানার অভিযোগের ভিত্তিতে সার্ভেয়ার দ্বারা জমি জরিপ করা হয়। জরিপ কাজ সম্পন্ন না হওয়ায় ১৯ জানুয়ারি মাপের দিন ধার্য ছিল।
এদিকে আব্দুল কুদ্দুসের আদালতে করা ১৪৪ ধারার মামলার নোটিশ বৃহস্পতিবার জারি করেন এএসআই গোপাল সাহা। আদালতের ১৪৪ ধারা উপো করে শনিবার আমজেদ গাজীরা লাঠিসোটা নিয়ে জমি দখলের চেষ্টা ও প্রতিপরে ওপর হামলা চালায়। তারা আব্দুল্লাহ গাজী (৫০) কে বেধড়ক পিটিয়ে মাথা ফাটিয়ে দেয়। এ সময় আনার আলী গাজীর স্ত্রীকেও পিটিয়ে আহত করা হয়। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত অজ্ঞান আব্দুল্লাহ গাজী ও নাজমা বেগম আহত অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন। কুদ্দুস গাজী জানান, সিএস রেকর্ডিয় মালিক হিসেবে তারা ভোগদখলে রয়েছেন। প্রতিপ আবু বাক্কার ২০ বছর আগে স্থানীয় আখিরন বিবির কাছ থেকে ৭ শতক জমি কেনেন। দখল বুঝে না পাওয়ায় তারা জোরপূর্বক দখল করতে এসে এএসআই গোপাল চন্দ্রের উপস্থিতিতে এ ঘটনা ঘটায়। প্রতিপ আমজেদ গাজী জানান, তারা বারবার জমি দেয়ার কথা বলে না দেয়ায় আমরা দখলে যাওয়ার চেষ্টা করি। ওসি এমদাদুল হক শেখ জানান, ঘটনাস্থলে মারামারির বিষয়টি জানতে পেরে তাৎণিকভাবে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। লিখিত অভিযোগ পেলে দোষীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

ভাগ