পরীক্ষায় পাস করতে পারবেন তাসকিন?

অবশেষে ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে দল পেয়েছেন তাসকিন আহমেদ। লিজেন্ডস অব রূপগঞ্জের হয়ে খেলবেন চোট থেকে সদ্যই সেরে ওঠা এই পেসার। সব ঠিক থাকলে বুধবার মিরপুরে উত্তরা স্পোর্টিং ক্লাবের বিপক্ষে মাঠে নামবেন এই তারকা। বিশ্বকাপ দল ঘোষণার আগে যে কটা ম্যাচই খেলা হোক, তাসকিন আহমেদের জন্য সেগুলো হতে যাচ্ছে চূড়ান্ত পরীক্ষা। তার ফিটনেস ও ম্যাচ পারফরম্যান্সে নির্বাচকেরা সন্তুষ্ট হলেই যে কেবল সুযোগ মিলবে বিশ্বকাপে খেলার।
বিপিএলে নিজ দল সিলেট সিক্সার্সের হয়ে লিগ পর্বের শেষ ম্যাচে চোটে পড়েন ডানহাতি পেসার তাসকিন। যা তাকে নিউ জিল্যান্ড সফর থেকে ছিটকে দেয়। একই সঙ্গে বিশ্বকাপ খেলার স্বপ্নপূরণের ক্ষেত্রেও তুলে জাগায় শঙ্কা। তাসকিন সদ্যই চোট থেকে সেরে উঠেছেন। টুকটাক অনুশীলন আগে থেকে শুরু করলেও সোমবার পুরো দমে বোলিং অনুশীলন করেন। মঙ্গলবারও অনুশীলন করেছেন। জানিয়েছেন প্রিমিয়ার লিগে দল পাওয়ার বিষয়টি। ঢাকা লিগের প্লেয়ার্স ড্রাফটে তাসকিন থাকলেও ইনজুরির কারণে শুরু থেকে থাকতে পারবেন না বলে তাকে কোনো দল নিজেদের তাঁবুতে ভেড়ায়নি। এরপর সুস্থ হয়ে ওঠার পরও দল পাচ্ছিলেন না। অবশেষে তার ওপর আস্থা রেখেছে দশম রাউন্ড থেকে শীর্ষে থাকা রূপগঞ্জ। যে কারণে ক্লাবটির কাছে কৃতজ্ঞ তিনি। তাসকিন জানালেন এর মধ্যে একটা স্বপ্ন পূরণ হলো তার, ‘‘এটাই আমার স্বপ্ন, এটার জন্যই এত কষ্ট করছি। শুকরিয়া আল্লাহর কাছে, খেলার পারমিশন পেয়েছি। আল্লাহ চাইলে আগামীকাল থেকে খেলতে নামব। সবার কাছে দোয়া চাচ্ছি যাতে আমি সুস্থ থাকি, ভালো করতে পারি।’’ সদ্যই পুরোদমে অনুশীলন শুরু করায় কিছুটা জড়তা এখনো আছে। তবে ফিটনেস নিয়ে আত্মবিশ্বাসী তাসকিন। চাপ থাকলেও তা জয় করার প্রত্যয় তার, ‘‘চাপ তো সব সময় অনুভব করি। ভালো না করলেই সুযোগ পাব না। ফিট না থাকলেও সুযোগ পাব না। এটা একটু বেশি চাপের, কারণ বিশ্বকাপ তো আমার স্বপ্ন। এখানে ফিট না হলে সুযোগ পাব না।’’ শেষ পর্যন্ত কি পূরণ হবে তাসকিনের বিশ্বকাপ স্বপ্ন। ২০১৫ সালে প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপে খেলেছিলেন এই তরকা।

ভাগ