ধাওয়ায় পলায়নরত ছিনতাইকারীর মৃত্যু

0

এম রুহুল আমীন, ডুমুরিয়া (খুলনা)॥ খুলনার ডুমুরিয়ায় এক নারী এনজিও কর্মীর টাকার ব্যাগ নিয়ে দৌঁড়ে পালাতে গিয়ে মৃত্যু হয়েছে এক ছিনতাইকারীর। গতকাল দুপুরে ডুমুরিয়া বাস স্ট্যান্ডে এই ঘটনা ঘটেছে। মৃত ছিনতাইকারীর নাম তপন হালদার (৫৫)। তার এই আকস্মিক মৃত্যু হৃদরোগে হয়েছে বলে ধারনা করা হচ্ছে।
পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, গতকাল দুপুরে ডুমুরিয়া সদরের সোনালী ব্যাংক থেকে সোমবার দুপুরে ‘ইসলামিক রিলিফ বাংলাদেশ’র (এনজিও) কর্মী শিলা মন্ডল সাড়ে ৩৫ হাজার টাকা তুলে ব্যাগে নিয়ে কর্মক্ষেত্রে যাওয়ার জন্য বাজারের মধ্য দিয়ে হাটছিলেন। পূবালী ব্যাংক মোড়ে পৌঁছালে এক ছিনতাইকারী হঠাৎ তার কাছ থেকে টাকার ব্যাগটি নিয়ে দৌড়ে খুলনা-সাতক্ষীরা সড়ক পেরিয়ে আরাজী ডুমুরিয়া গ্রামের দিকে পালিয়ে যায়। ওই সময় শিলা মন্ডল দৌড়ে মোড়ে পৌঁছে এক মোটরসাইকেল চালককে অনুরোধ করে দ্রুত ছিনতাইকারীর পিছু নিয়ে আরাজী ডুমুরিয়া-মির্জাপুর মোড় পর্যন্ত খুঁজতে থাকেন। এক সময় ওই ছিনতাইকারীকে ব্যাগ নিয়ে হাটতে দেখে তার পিছু নেন। কিন্তু কিছু সময় ধরে খোঁজার পরও ছিনতাইকারীকে আর খুঁজে পাওয়া যায়নি। ওই ঘটনার ঘন্টাখানেক পর ডুমুরিয়া বাসস্ট্যান্ড মোড়ে ‘ছিনতাইকারীর সন্ধান মিলেছে’ এমন খবর পেয়ে ভুক্তভোগী শিলা মন্ডল আবারও আরাজী ডুমুরিয়া গ্রামে যান এবং সোহরাব গাজীর বাড়ির কাছে পৌঁছে ছিনতাইকারী তপন হালদারকে অচেতন অবস্থায় পড়ে মুখদিয়ে ফেনা বের হতে দেখেন। তখন তিনি পুলিশে খবর দিলে ডুমুরিয়া থানা পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ছিনতাইকারীকে তুলে নিয়ে ডুমুরিয়া হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তপনকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। এ ঘটনা চলাকালে ডুমুরিয়া মোড় থেকে এলাকাবাসী ছিনতাইকারী চক্রের অপর সদস্য আলতাপ হোসেন (৪৩) কেও আটক করে পুলিশের হাতে তুলে দেন। উল্লেখ্য মৃত তপনের দেহ থেকে ছিনতাই হওয়া সাড়ে ৩৫ হাজার টাকাও উদ্ধার হয়েছে।
প্রত্যক্ষদর্শী ডুমুরিয়া সদরের ইউপি মেম্বর লুৎফর রহমান মোড়ল বলেন, আমরা ওই মহিলার অনুরোধে ছিনতাইকারীকে ধরতে চেষ্টা করতে থাকি। এক পর্যায়ে সোহরাব মোড়লের বাড়ির বাথরুমের মধ্য থেকে মৃত অবস্থায় ছিনতাইকারীকে উদ্ধার করেছি।
ডুমুরিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ সেখ কনি মিয়া বলেন, প্রাথমিক তদন্তে জানা গেছে, ওরা ৪ জনের একটা ছিনতাইকারী চক্র। জনতার তাড়া খেয়ে পালানোর সময় দৌলতপুর থানার মহেশ্বরপাশা বণিকপাড়া এলাকার নলিনী হালদারের ছেলে (ছিনতাইকারী) তপন হালদার আকষ্মিকভাবে মারা গেছে। তার পরিবারিক সুত্রে জানা গেছে, তপন হার্টের রোগী ছিলো। এ ঘটনায় শিলা মন্ডলের অভিযোগের প্রেক্ষিতে মামলা হয়েছে।

Lab Scan