তুরস্ক-সিরিয়ায় ভূমিকম্প : নিহতের সংখ্যা ছাড়াল ২১ হাজার

0

লোকসমাজ ডেস্ক॥ তুরস্ক ও সিরিয়ার ভূমিকম্পে নিহতের সংখ্যা ২১ হাজার ছাড়িয়ে গেছে। দুই দেশে মোট নিহতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২১ হাজার ৫১ জনে। আরো অসংখ্য লোক এখনো ধ্বংসস্তুপের নিচে চাপা পড়ে থাকায় সংখ্যাটি আরো বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। চাপা পড়া লোকদের জীবিত উদ্ধারের সম্ভাবনা এখন বেশ ক্ষীণ বলে মনে করা হচ্ছে।
তুর্কি দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা সংস্থা জানিয়েছে, তাদের দেশে ভূমিকম্পে বৃহস্পতিবার রাত পর্যন্ত নিশ্চিত মৃত্যু হয়েছে ১৭,৬৭৪ জনের। আর প্রতিবেশী সিরিয়ার মারা গেছে ৩,৩৭৭ জন।
ইউরোপীয় ইউনিয়নের প্রধান উরসুলা ভনদের লেয়েন বলেছেন, সিরিয়া ও তুরস্কে এ সপ্তাহের বিধ্বংসী ভূমিকম্পের ঘটনার পর ইইউ দেশ দু’টির জন্য আন্তর্জাতিক সহায়তা জোগাড় করতে মার্চে একটি দাতা সম্মেলন আয়োজনের পরিকল্পনা করছে।
ভনদের লেয়েন টুইট বার্তায় লিখেছেন, ‘আমরা এখন একসাথে জীবন বাঁচানোর জন্য ঘড়ির কাঁটার বিপরীতে দৌড়াচ্ছি। আমরা শিগগিরই এক সাথে ত্রাণ সহায়তা প্রদান করবো। এক্ষেত্রে তুরস্ক ও সিরিয়া ইউরোপীয় ইউনিয়নের উপর নির্ভর করতে পারে।’
ইউরোপীয় ইউনিয়ন জানায়, তুরস্ক ও সিরিয়ার জনগণকে সহায়তায় আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের কাছ থেকে তহবিল সংগ্রহের জন্য তুরস্ক কর্তৃপক্ষের সাথে সমন্বয় করে সম্মেলনটি আগামী মাসের প্রথম দিকে ব্রাসেলসে অনুষ্ঠিত হবে।
ভনডের লেয়েন এক বিবৃতিতে বলেন, ‘যখন এ ধরনের ট্র্যাজেডি জনগণকে আঘাত করে তখন কাউকে একা রাখা উচিত নয়।’
ব্লকটি জানায়, এ সম্মেলন দুর্যোগে আন্তর্জাতিক সাড়া পাওয়ার লক্ষে এবং ইইউ সদস্য রাষ্ট্র, প্রতিবেশি দেশ, জাতিসঙ্ঘ সদস্য এবং আন্তর্জাতিক ঋণদাতাদের জন্য উন্মুক্ত থাকবে।
সোমবার সিরিয়ার সীমান্তের কাছে তুরস্কে রিখটার স্কেলে ৭ দশমিক ৮ মাত্রার শক্তিশালী ভূমিকম্প আঘাত হানার পর ইউরোপীয় ইউনিয়ন দেশটিতে দ্রুত উদ্ধারকারী দল পাঠায়।
এদিকে সঙ্কট ব্যবস্থাপনা বিষয়ক ব্লকের কমিশনার বলেন, বুধবার দামেস্ক ইউরোপীয় ইউনিয়নের কাছে সাহায্যের জন্য আনুষ্ঠানিক আবেদন জানিয়েছে।
সূত্র : আল জাজিরা ও এএফপি

Lab Scan